ডেস্ক রির্পোটঃ কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি বলেছেন, অতীতে দলের ত্যাগী কর্মীরা মুল্যায়ন ছিল না। কুমিল্লায় যারা আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত ও আত্মত্যাগী কর্মী তাদের বাদ দিয়ে এক সময় পকেট কমিটি করা হতো। মহানগর আওয়ামীলীগের কমিটি নিয়েও অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছিলো। মহানগর আ’লীগ কমিটি আমাকে আমার পছন্দ মতো দেয়ার পর অবহেলিত ত্যাগী কর্মীরা আজ দলীয়ভাবে মূল্যায়িত হচ্ছে। সংগঠনে পদ পাওয়া শুরু করেছে। কুমিল্লায় একেকটি ওয়ার্ড, পাড়া শেখ হাসিনার ঘাটিতে পরিণত হয়েছে। আগামিতে প্রতিটি ঘরে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক তৈরী হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে ভূমিকা রাখবে।
তিনি আরো বলেন,৫০ বছর সততা ও নিষ্ঠার সাথে রাজনীতি করেছি। মানুষের পাশে দাড়িয়েছি, উপকার করেছি, কাজ করে দিয়েছি বিনিময়ে এককাপ চা খাইনি, দুর্নীতি করেনি। আমাকে আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কারের পর বিএনপির সাবেক রাষ্ট্রপতি বি. চৌধুরী আমাকে বিএনপিতে যোগ দিয়ে মন্ত্রীত্ব নেয়ারও প্রস্তাব দিয়েছিলেন। নাকচ করেছিলাম। অথচ আফজল খান পরিবার উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রস্তাবের লোভ সংবরণ করতে পারেনি। আ’লীগ ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছিলো।
গতকাল রোববার রাতে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের ৯নং ওয়ার্ডের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হাজী বাহার এমপি আরো বলেন, আমার বিরুদ্ধে সেই ১৯৮৪ সাল থেকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র চলছে। আমার হাতে গড়া কর্মী দুলাল হত্যার মিথ্যা ষড়যন্ত্র মামলায় আমাকে জেলে যেতে হয়েছিলো। তখন আওয়ামীলীগ থেকে ষড়যন্ত্রকারীরা আমাকে বহিস্কার করেছিলো। কারাগারে থেকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করে জামিন নিয়ে নির্বাচন করে ৩৫ হাজার ভোট পেয়েছিলাম। তখন এমপি হতে না পারলেও মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছিলাম। অত্যন্ত তরুণ বয়সে আমি পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলাম। কুমিল্লার মানুষের অনেক প্রত্যাশা রয়েছে আমার কাছে। এই বিষয়টি তখনই বুঝতে পেরেছিলাম। তখন থেকেই কুমিল্লার জন্য কাজ করার প্রতিজ্ঞা করেছিলাম। ।
মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন -মহানগর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি জেলা পিপি এড. জহিরুল ইসলাম সেলিম, ডা: আবদুল বাকী আনিছ, আব্দুল আলীম কা ন, মহানগর আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদু হাই বাবলু, চিত্ত রঞ্জন ভৌমিক, মহানগর আ’লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জমির উদ্দিন খান জম্পি, মহানগর আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক শিবু প্রসাদ ভৌমিক, আদর্শ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মো:আমিনুল ইসলাম টুটুল, উপ দপ্তর সম্পাদক দুলাল মাহমুদ, কোষাধ্যক্ষ আলী মনসুর ফারুক, সদস্য সাবেক প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন আহমেদ, মহানগর শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক আবদুল কাইয়ুম, মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আবদুল্লাহ আল মাহ্মুদ সহিদ, মহানগর আ’লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর সরকার মাহমুদ জাবেদ, প্রচার সম্পাদক জহিরুল কামাল, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক সাদেকুর রহমান রানা, আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো: তারিকুর রহমান জুয়েল,মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াস, মহানগর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আবদুল আজিজ সিহানুক। সম্মেলনে মহানগর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ সহ অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্নস্তরেরর নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান স ালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন।
সম্মেলনে হাজী আবদুল ওয়াদুদ কে সভাপতি ও এডভোকেট আলাউদ্দিন ভূইয়া স্বপনকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়েছে।