অভিযানের প্রতিবাদেবেসরকারি সব হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা

ডেস্ক রিপোর্টঃ ভুল চিকিৎসায় আড়াই বছরের শিশু রাইফা খানের করুণ মৃত্যুর ঘটনায় আলোচিত নগরীর ম্যাক্স হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। এসময় বিভিন্ন অভিযোগে হাসপাতালটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জরিমানার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে ম্যাক্স হাসপাতালসহ মহানগরী, জেলা, উপজেলাসহ সকল স্তরের প্রাইভেট প্র্যাকটিসসহ ডায়াগনস্টিক সেন্টার, রেসরকারি ক্লিনিক-হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ রবিবার (৮ জুলাই) দুপুরে নগরীর বিএমএ ভবনে এক জরুরি সভা থেকে এই ঘোষণা দেয় বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান মালিক সমিতি। এদিকে বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান মালিক সমিতির এই সিদ্ধান্তে একাত্মতা জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) চট্টগ্রাম জেলা শাখা।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে নগরীর ম্যাক্স, মেট্রোপলিটন, সিএসসিআর, রয়েল ও ল্যাব এইড হাসপাতালে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। অভিযানে এসব হাসপাতালগুলোর নানা অসঙ্গতি ধরা পড়ে। বিশেষ করে এক সাংবাদিককন্যার মৃত্যুর ঘটনায় অভিযোগের মুখে থাকা ম্যাক্স হাসপাতালের আতঙ্কিত হওয়ার মতো ত্রুটি-বিচ্যুতি ধরা পড়ে র‌্যাবের অভিযানে।

ম্যাজিস্ট্রেট মো. সরোয়ার আলম এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইতোমধ্যে ম্যাক্স হাসপাতালে কিছু অসঙ্গতি পেয়েছি। রোগ নির্ণয়ে বিভিন্ন স্যাম্পল কালেকশন করে তারা চট্টগ্রাম ও দেশের বাইরের বিভিন্ন ল্যাবে পাঠিয়ে দেয়। অনেকটা কমিশন এজেন্টের মত তারা কাজ করেন। অথচ রোগীরা তাদের বিশ্বাস করেই এখানে মেডিকেল টেস্ট করান। দেশের বাইরে স্যাম্পল পাঠাতে সরকারি অনুমোদন লাগে। অথচ কোনো ধরনের অনুমতি ছাড়াই তারা এসব নমুনা বিদেশে পাঠিয়েছে।’

সারোয়ার আলম আরও বলেন, ‘একজন নমুনা সংগ্রহ করছে, অন্যজন পরীক্ষা করছে আবার অ্যানালাইসিস করা হচ্ছে অন্য জায়গায়। এভাবে রিপোর্ট তৈরি হচ্ছে ম্যাক্সের ল্যাবে।’

‘এগুলো আসলেই পরীক্ষা হয়েছে কি না সেটাই তো নিশ্চিত না। বায়োকেমিস্ট্রি ল্যাবে এইচএসসি পাস লোকজন চাকরি করছে। এখানে মিনিমাম স্নাতক ডিগ্রিধারী বা বিশেষ যোগ্যতাসম্পন্নদের কাজ করার কথা। একটা হাসপাতাল চালাতে হলে অবশ্যই নমুনা পরীক্ষার নিজস্ব ব্যবস্থা থাকতে হবে সেটা তাদের নেই। অভিযানে ম্যাক্স হাসপাতালটিতে এপিক হেলথ কেয়ার, ল্যাব এইড, পপুলার ডায়গনস্টিক সেন্টার, ডা. লাল প্যাথ ল্যাব, প্যাথ কেয়ার ল্যাব ও সিগমা ল্যাব লিমিটেডে করানো বিভিন্ন পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে।’

দৈনিক সমকালের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রুবেল খানের আড়াই বছর বয়সী মেয়ে রাইফা গলায় ব্যথা নিয়ে গত ২৮ জুন বিকালে বন্দরনগরীর মেহেদীবাগের ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরদিন রাতে তার মৃত্যু ঘটে। চিকিৎসকের অবহেলা ও ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে অভিযোগ। ঘটনা তদন্তে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করা প্রতিবেদনেও ম্যাক্স হাসপাতালের ১১টি ত্রুটি উঠে আসে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ