ইসলাম মানুষকে ভালোবাসতে শেখায়: আতিকুল

নাসির উদ্দিন তন্ময়ঃ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেন, ইসলাম শিখিয়েছে মানুষকে ভালোবাসতে। মানুষকে হত্যা করার জন্য ইসলাম কোনদিন বলেনি, ইসলাম শিখিয়েছে সত্য ও ন্যায়ের পথ, ইসলাম শিখিয়েছে কিভাবে দেশকে ভালোবাসতে হয়। যারা কওমি মাদরাসায় পড়াশোনা করে যারা বুকের মাঝে কুরআন রাখে তারা অবশ্যই সিরাতুল মুস্তাকীমের পথে আছে।

সোমবার ঢাকার উত্তরখানে ইত্তেহাদুল উলামা এর উদ্যোগে আয়োজিত ঐতিহাসিক ইসলামী মহাসম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মুসলমানদের নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে, পৃথিবীতে মুসলমানদের ধ্বংস করতে চায় ওরা। কিন্তু কোরআন কোনদিন ধ্বংস হবে না। কোরআনের হেফাজত স্বয়ং আল্লাহ করবেন

আতিকুল ইসলাম বলেন, মাদরাসা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন ছিল আমার বাবার কিন্তু পারেননি, আমি আমার বাবার ইচ্ছা পূরণ করতে পেরেছি, কওমি মাদরাসা করেছি। যখন আমি মাদরাসা করি তখন আমার বন্ধুরা বলেছে তুমি মাদরাসা করো না তুমি স্কুল করো, কিন্তু আমি তাদের কথা শুনিনি, আমি মাদরাসা করেছি এবং আল্লাহর রহমতে ২৭০ জন কোরানের হাফেজ মাদ্রাসা থেকে তৈরী হয়েছে। মাদরাসার ছাত্ররা নেশাগ্রস্থ হয় না, আমি দেখি নাই, আমি দেখেছি ইংলিশ মিডিয়ামের ছাত্ররা নেশাগ্রস্ত হতে।

আলী আহমেদ এর সভাপতিত্বে মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান চৌধুরী।

এর আগে নিজ উদ্যোগে করা দারুল কোরআন ইসলামিয়া মাদরাসায় যান আতিকুল ইসলাম। সেখানে মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন তিনি। এতিম বাচ্চাদের খোজ খবর নেন এবং সমস্যা আছে কিনা জানতে চান।

উল্লেখ্য বিজিএমইএ এর সাবেক সভাপতি ও কুমিল্লা হোমনার কৃতি সন্তান আতিকুল ইসলাম ২০১০ সালে ঢাকার উত্তরখানের মৈনারটেকে দারুল কোরআন ইসলামিয়া মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করেন। ১০৭জন ছাত্র নিয় শুরু হওয়া মাদরাসায় বর্তমানে ছাত্র রয়েছে ৩০৩জন। ২২জন শিক্ষক মাদরাসাটিতে পাঠদান করছেন। বিনাখরচে ২৭জন মাদরাসা ছাত্রকে পড়াচ্ছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা নিজে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত ২৭০জন কোরআনে হাফেজ বের হয়েছে মাদরাসাটি থেকে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: