খেলতে খেলতে গরম কড়াইতে পড়ে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। এসময় রান্না ও মোবাইলে ব্যস্ত থাকায় শিশুর দিকে নজর দিতে পারেনি রাঁধুনি মা। স্বজনদের অভিযোগ, রাঁধুনি শিশুদের দিকে নজর না দিয়ে দিনভর মোবাইলে ব্যস্ত থাকায় এই বিপত্তি ঘটেছে। এ ঘটনায় এফআইআর দায়ের করেছে নিহত শিশুর পরিবার। তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় জেলাশাসক।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরের একটি স্কুলে। সেখানেই খেলা করছিল বছর তিনেকের এক শিশু। অভিযোগ, রাঁধুনি সামনে উপস্থিত থাকলেও, তার কানে ছিল হেডফোন। তাই শিশু কী করছে, সেদিকে খেয়াল ছিল না তার। খেলতে খেলতেই অসাবধানবশত চুলায় বসানো ফুটন্ত তরকারির কড়াইতে পড়ে যায় ছোট্ট শিশুটি। চিৎকার করতে থাকলে নজর পড়ে মোবাইলে ব্যস্ত রাঁধুনি এবং শিক্ষক- শিক্ষিকাদের। সঙ্গে সঙ্গে তাকে গরম কড়া থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে শেষরক্ষা হয়নি। কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যু হয় শিশুটির। এই খবর পাওয়া মাত্রই কান্নায় ভেঙে পড়ে ওই শিশুর পরিবার। স্কুল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতাতেই তাদের সন্তানের মৃত্যু হয়েছে বলেই দাবি পরিজনদের।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: