কুমিল্লাকে আটকাতেই এতো কিছু !

ডেস্ক রিপোর্টঃ বিপিএল কমিটি নিজেদের তৈরি নিয়মকানুন উপেক্ষা করে ইতিহাস তৈরি করে ফেলল। বৃষ্টিতে খেলা যেখানে পরিত্যক্ত হওয়ার কথা। নেই রিজার্ভ ডের ব্যবস্থা। যেখানে খেলা না হলে কী হবে তাও স্পষ্ট। সে ম্যাচটি তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে পরের দিন অর্থাৎ আজ শিফট করা হয়েছে। আজ গতকালের স্থান থেকেই রংপুর-৫৫/১ (৭ ওভার) শুরু হবে খেলা সন্ধ্যা ৬টায়। আসলে প্রয়োজন ও ক্ষমতার কাছে নতজানু হলো ক্রিকেট। নতজানু হলো বিসিবি/ বিপিএল কমিটি। নিজেদের স্বার্থ বিবেচনা করে এবং ক্ষমতার কাছে পরাস্ত হয়ে ওই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হলো বিসিবির এ কমিটি।

গতকাল কোয়ালিফায়ার-২ (ফাইনালে ওঠার শেষ ম্যাচ) ম্যাচে টসে জিতে কুমিল্লা প্রথম ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছিল রংপুর রাইডার্সকে। খেলার সাত ওভার হওয়ার পর বৃষ্টি হয়। এতে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষা করার পর মাঠে নামে দুই দলের শীর্ষস্থানীয়রা। বিসিবির ও বিপিএলের কর্মকর্তাদেরও শুরু হয় তৎপরতা।

যেহেতু ম্যাচ না হলে কুমিল্লা উঠে যাবে ফাইনালে। অধিনায়ক তামিম ইকবাল নির্ধারিত সময় ৯-৪৫ এর পর আর খেলবেন না বলে জানিয়ে দেন।

মাশরাফি অবশ্য খেলার পক্ষে ছিলেন। কারণ তার দলের অবস্থান ভালো ও রেজাল্ট প্রয়োজন এবং সাত ওভারে সংগ্রহ করেছিল তারা গেইলের উইকেট হারিয়ে ৫৫/১। এ নিয়েই মূলত চলে বিতর্ক। দীর্ঘক্ষণ চলে ত্রিপক্ষীয় এ আলোচনা। বিপিএল কমিটি উপেক্ষা করতে পারছিল না রংপুরকে। ফলে ওই আলোচনায় অংশ নিতে দেখা গেছে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালকেও (কুমিল্লার পক্ষ হয়ে)।

নাফিসা কামালও রবিবার রাতে এক ফেসবুক পোষ্টের মাধ্যমে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যদের সাথে তার বাবা কুমিল্লার জন্য একা যুদ্ধ করেন বলে উল্লেখ করেন।

খেলা এক সময় শুরুর জন্য পিচ কাভার তুলে ফেলে উইকেটও আবার স্থাপন করা হয়। কিন্তু তামিম নাছোড় বান্দা। সাফ কথা নিয়মের বাইরে গিয়ে কুমিল্লা খেলবে না। পরিশেষে বিপিএল কমিটি সিদ্ধান্ত দিয়ে দেয় যে স্থানে রয়েছে ওই স্থান থেকে আজ আবার শুরু হবে খেলা। এবং আজ যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।

বিপিএল আসলে বিনোদনের লিগ! এখানে নিয়মকানুনের থোড়া-ই কেয়ার। এ আসরের একটা বাইলজ রয়েছে। কিন্তু সময়মতো তাও কাজে এলো না। ক্ষমতার দাপটের কাছে বাইলজ উপেক্ষিত হলো।

বিপিএলের বাইলজে রয়েছে এলিমেনিটর ও কোয়ালিফায়ার ম্যাচ যদি বৃষ্টিতে না হতে পারে। তাহলে খেলা পরিত্যক্ত। লিগে যে দলের পয়েন্ট বেশি সে দল পরবর্তী স্তরে উঠে যাবে। কিন্তু কাল সে নিয়মকানুন মানেনি বিপিএল কমিটি। নিজেদের তৈরি বাইলজ ফেলে দিয়েছেন তারা আঁস্তাকুড়ে। কারণ একটিই। গতকাল কোয়াইলিফায়ার-২ ম্যাচের প্রতিপক্ষ ছিল বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতা করা রংপুর রাইডার ও পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের পৃষ্ঠপোষকতা করা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বিসিবি কাকে রেখে কাকে কী বলবে। শেষ পর্যন্ত আজকে রিজার্ভ ডে না রাখা হলেও তৈরি হলো রিজার্ভ ডের। এবং অপেক্ষা দ্বিতীয় ফাইনালিস্টের।

শেষ পর্যন্ত উপরিউক্ত সিদ্ধান্তের অবতারণা ঘটানো হলো অনেকটা রংপুরকে খুশি রাখার জন্যই! এবং আজ অনুষ্ঠিত হবে বাকি খেলা।

সূত্রঃ dailynayadiganta