কুমিল্লার হোমনায় নিখোঁজের ৫দিন পর স্কুল ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা হোমনা উপজেলার সাপলেজি গ্রামের স্কুল ছাত্র জাহিদ হাসানের মরদেহ নিখোঁজের পাঁচ দিন পর সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার রাতে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

হোমনা থানার ওসি রসুল আহমেদ জানান, হোমনার সাপলেজি গ্রামের আখতারুজ্জামানের ছেলে পাশ্ববতী দুলালপুর চন্দ্র মনি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাদ্র জাহিদকে গত ৫ দিন আগে সন্ধ্যায় প্রতিবেশী এক ছেলে ডেকে নিয়ে যায়। রাতে জাহিদ বাড়ি না ফিরলে, পর দিন তার বাবা হোমনা থানায় অভিযোগ করে। এদিকে মঙ্গলবার সকালে একটি মোবাইল নাম্বার থেকে ম্যাসেজের মাধ্যমে জাহিদের চাচার কাছে ৫০ লক্ষ টাকা মুক্তিপন চাওয়া হয়।

মোবাইল নাম্বারটির সুত্র ধরে পুলিশ পাশ্ববর্তী দুলালপুর গ্রামের এমদাদ, জিয়াদ ও খায়রুলকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা জানান, জাহিদকে নিখোঁজের দিনই দুলালপুর বাজারের একটি কক্ষে গলাটিপে হত্যা শেষে দুলালপুর চন্দ্র মনি উচ্চ বিদ্যালয়ের সেপটিক ট্যাংকে ফেলে রাখা হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। গ্রেফতারকৃত তিনজনই ঐ স্কুলের দশম শ্রেনির ছাত্র।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: