কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ছেলে মারা যাওয়ার শোকে মারা গেছেন বৃদ্ধ বাবাও। উপজেলার আদ্রা ইউনিয়নের পদুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

গত ১৬ জুন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান উপজেলার পদুয়া গ্রামের আজিজুল হক মজুমদারের ছেলে স্কুল শিক্ষক ইকবাল হোসেন মজুমদার মিঠু (৫৫)। তিনি জেলার লাকসাম উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

অপরদিকে, ছেলের মৃত্যুর শোকে শনিবার দুপুরের দিকে বাড়িতে মারা যান মিঠুর বাবা অবসরপ্রাপ্ত বিআরডিবি কর্মকর্তা আজিজুল হক মজুমদার (৭২)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্কুল শিক্ষক মিঠু দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিক ও হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। তার ডায়াবেটিকসহ হার্টের সমস্যা দেখা দিলে গত ১৪ জুন তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শ্বাসকষ্টসহ করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় করোনা ইউনিটের আইসিউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে গত ১৬ জুন তিনি মারা যান। মৃত্যুর আগে নেয়া করোনা পরীক্ষায় তার পজিটিভ ফলাফল আসে।

এদিকে স্কুল শিক্ষক মিঠুর মৃত্যুর শোকে তার বৃদ্ধ বাবা অবসরপ্রাপ্ত বিআরডিবি কর্মকর্তা আজিজুল হক মজুমদার (৭২) অসুস্থ হয়ে পড়েন। শনিবার দুপুরের দিকে তিনি নিজ বাড়িতে মারা যান।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল ওহাব জানান, মিঠুর বাবা আজিজুল হক অনেক দিন যাবৎ হার্ট, কিডনিসহ শারীরিক নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করে ছেলের শোকে তিনি আরও অসুস্থ হয়ে শনিবার মারা যান। বিকেলে তাকে ছেলের কবরের পাশে সমাহিত করা হয়েছে। এদিকে বাবা-ছেলের মৃত্যুতে ওই পরিবারের এখন চলছে শোকের মাতম।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: