ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার সদর দক্ষিণ ও চান্দিনা উপজেলায় পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুই স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। এর প্রতিবাদে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে এক ঘণ্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ জনতা।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সদর দক্ষিণ উপজেলার মোস্তফাপুর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি লেগুনা খাদে পড়ে রিনা সাহা নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। এছাড়া সকাল নয়টায় চান্দিনা উপজেলার কুটুম্বপুর এলাকায় ট্রাকচাপায় নিহত হয়েছে মাহমুদা আক্তার ইয়াসমিন নামে আরেক স্কুলছাত্রী।

সদর দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সকালে লেগুনাযোগে বাড়ি থেকে স্কুল যাচ্ছিল রিনা সাহা। মোস্তফাপুর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লেগুনাটি খাদে পড়লে ঘটনাস্থলেই ওই স্কুলছাত্রী নিহত হয়। আহত হয় আরও পাঁচজন। তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

>>আরো পড়ুনঃ  কুমিল্লায় মিথ্যা মামলায় বেকসুম খালাস পেলেন সাংবাদিক মাসুদ

নিহত রিনা সাহা সদর দক্ষিণ উপজেলার বারপাড়া গ্রামের লবু সাহার মেয়ে। সে বিজয়পুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

অন্যদিকে সকাল নয়টার দিকে চান্দিনা উপজেলার কুটুম্বপুর এলাকায় গ্যাসবাহী ট্রাকের চাপায় মাহমুদা আক্তার ইয়াসমিন নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে।

মাহমুদা চান্দিনা উপজেলার নাজিরপুর গ্রামের মনির হোসেনের মেয়ে। সে কুটুম্বপুর হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

দুর্ঘটনার পর কুটুম্বপুর স্কুলের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী বিক্ষিপ্ত হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে এক ঘণ্টার মতো সড়ক অবরোধ করে রাখেন তারা।

চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল ফয়সল জানায়, স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে গ্যাসবাহী ট্রাক চাপা দিলে ঘটনাস্থলে ওই ছাত্রী নিহত হয়। তারপর তারা সড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ