কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

ডেস্ক রির্পোটঃ কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মেহেদী হাসান নামে (৩০) এক যুবক নিহত হয়েছেন। শনিবার গভীর রাতে নাঙ্গলকোট উপজেলার অলিপুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ বলছে, নিহত মেহেদী হাসান মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্র ও এক হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহত পুলিশ কনস্টেবল আলাউদ্দিন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মেহেদী হাসান নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামের একরামুল হকের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে নাঙ্গলকোট উপজেলার অলিপুর বাজারে মাদক কেনাবেচা চলছে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে থানার ওসি নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে। মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টাকালে পুলিশের গাড়িচালক কনস্টেবল আলাউদ্দিন মেহেদী হাসান নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে। এ সময় মেহেদী হাসানকে ছাড়িয়ে নিতে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং কনস্টেবল আলাউদ্দিনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে মেহেদী হাসান গুরুতর আহত হয়। পরে পুলিশ কনস্টেবল আলাউদ্দিন এবং মাদক ব্যবসায়ী মেহেদী হাসানকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাদক ব্যবসায়ী মেহেদী হাসান মারা যান।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আবদুল্লাহ আল-মামুন জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, একটি গুলি, গুলির খোসা, একটি চাপাতি ও এক হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত মাদক ব্যবসায়ীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ