জে.এইচ বাবুঃ কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার ঝাগরজুলি হৃদগড়া এলাকায় ময়না বল সাবান ফ্যাক্টরির বিষাক্ত কেমিক্যাল নির্গিত হয়ে গতকাল রোববার সকালে একটি মাছের ঘেরের ২৫ লাখ টাকার মাছ মারা গেছে বলে জানা যায়। এতে করে রাস্তার ফকির হয়ে গেলেন ফরহাদ আলী নামে এক খামারী। এ ব্যাপারে ফরহাদ আলী বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, জেলার আদর্শ সদর উপজেলার ঝাগরজুলি মুক্তি সিএনজি পাম্পের পিছনে হৃদগড়া এলাকায় ৩০একর জমিতে অন্তত ১০ বছর যাবৎ মাছের চাষ করে আসছেন ফরহাদ আলী। তার মাছের ঘেরের পশ্চিম কর্নারে অবস্থিত ময়না বল সাবান নামের একটি মানহীন সোডা সাবানের ফ্যাক্টরি। ওই সাবান ফ্যাক্টরির উচ্চ মাত্রার বিষাক্ত রাসায়নিক কেমিক্যাল গেল কয়েক মাস পূর্বে রাতের আধারে তার মাছের ঘেরে ফেলে কয়েক লাখ টাকার মাছ মেরে ক্ষতি করা হয় । বিগত সময়ে সাবান ফ্যাক্টরির মালিক শাহজাহান সিরাজকে কয়েকবার বলার পরও কেমিক্যাল ফেলা বন্ধ করেননি তিনি। এরই ধারবাহিকতায় শনিবার রাতে সাবান ফ্যাক্টরির বিপুল পরিমান ক্ষতিকার উচ্চ মাত্রার কেমিক্যাল ফেলা হয় ওই মাছের ঘেরে। কেমিক্যালের কারনে পানি বিষাক্ত হয়ে রুই, কাতল, বোয়ালসহ দেশীয় বিভিন্ন জাতের অন্তত ৫০০মন মাছ মারা যায়। যার আনুমানিক মুল্য ২৫ লাখ টাকা বলে জানায় মালিক ফরহাদ আলী।

অভিযোগের বিষয়ে ময়না বল সাবান ফ্যাক্টরির মালিক শাহজাহান সিরাজ জানান, সাবান ফ্যাক্টরির কেমিক্যালের কারনে যদি মাছ মারা গিয়ে থাকে, তাহলে বিষয়টি আমরা স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করে নিব।

অভিযোগের তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই ফারুক আহমেদ জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে সাবান ফ্যাক্টরির বিষাক্ত কেমিক্যালের কারনেই মাছগুলো মারা গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।