কুমিল্লায় মাদক সেবী আ’লীগ নেতার হাতে শিক্ষক লাঞ্চিত

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের আবিদপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যাপক মোঃ বদিউল আলম এর উপর গত মঙ্গল বার প্রকাশ্যে দিবালকে কলেজের আভ্যন্তরীন তুচ্ছ ঘটানাকে কেন্দ্র করে কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন এর কক্ষে কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য আব্দুল কাদের কাজল ও মোঃ আবু আহাম্মেদ এর সঙ্গে তর্কবিতর্ক ঘটে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আব্দুল কাদের কাজল কলেজ কমিটির অপর সদস্য মোঃ আবু আহাম্মদ অধ্যাপক মোঃ বদিউল আলম কে লাঞ্চিত করে ধাক্কাতে ধাক্কাতে কলেজ থেকে বের করে দিয়ে হকিষ্টিক নিয়ে ধাওয়া করে। বিষয়টি স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে অধ্যাপক মোঃ বদিউল আলম কে প্রানে রক্ষা করে।

Loading...

এই ঘটানার প্রতিবাদে বুধবার ১২টায় কলেজ প্রাঙ্গনে শিক্ষক ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোগে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এবং কুখ্যাত সন্ত্রাসী আবু আহাম্মেদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকাবাসী জানায়, মাদকাসক্ত আবু আহাম্মেদ নবম শ্রেণী পাশ করতে না পারলেও আবিদপুর স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। সুত্রটি আরো জানায়, সে এক সময় গরু চুরির সাথে জড়িত থাকলেও বর্তমানে এলাকায় আওয়ামীলীগ নেতা হিসেবে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়ায়।

মানব বন্ধন কর্মসূচীতে বিচারের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কলেজের সহকারী অধ্যাপক যথাক্রমে আঃ হাফেজ, মাহাবুবুল আলম, নিলুফা ইয়াছমিন, বিজন কুমার দাস, সিনিয়র প্রভাষক ইয়াছমিন মজুমদার, প্রভাষক রফিকুল ইসলাম, শিক্ষক প্রতিনিধি আবুল কালাম ভূইয়া, মোঃ জাকির হোসেন, শিক্ষক পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, প্রভাষক সুফিয়া আক্তার, প্রভাষক ওমর ফারুক এবং আবিদপুর স্কুল এন্ড কলেজের বিভিন্ন শ্রেনীর ছাত্র-ছাত্রী মানব বন্ধনে অংশ গ্রহন করে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার বিচার দাবী করেন।

উল্লেখ্য সন্ত্রাসী হামলার শিকার অধ্যাপক মোঃ বদিউল আলম গত মঙ্গলবার বিকেলে এই ঘটনায় বুড়িচং থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন।

মানব বন্ধন কর্মসূচী চলাকালে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাড়ির এস আই মাইন উদ্দিন সহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: