কুমিল্লায় মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষা দিলেন রিম্বী

মারুফ আহমেদঃ কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গতকাল সোমবার ইভানা হান্নান রিন্বী নামে এক শিক্ষার্থী মায়ের লাশ বাড়ীতে রেখেই ইংরেজী ১ম পত্র পরীক্ষা সম্পন্ন করলেন। রোববার রাতে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হয় রিম্বী’র মা তাছলিমা বেগম।

জানা যায়, সদর দক্ষিন উপজেলার গলিয়ারা উত্তর ইউনিয়নের মুগদুধ গ্রামের আবদুল হান্নানের মেয়ে ইভানা হান্নান রিম্বী বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি শাহদৌলতপুর এলাকায় নানার বাড়ীতে থেকে লেখাপড়া করে আসছে। সে নাজিরা বাজার দ্যা হলি কেয়ার ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে এবারের এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন। রোববার রাতে রিম্বীর মা তাছিলিমা বেগম (৩৫) কালাকচুয়া মৈশান বাড়ির মিজানুর রহমান নয়ন নামে ভাগিনার (স্বমীর বোনের ছেলে) বিয়ের কেনাকাটা শেষ করে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট থেকে বাবার বাড়ীতে যাওয়ার পথে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কালাকচুয়া হোটেল বিরতি রেস্তোঁরা সংলগ্ন রাস্তা পারাপারের সময় অজ্ঞাত একটি এম্বুলেন্সের নিচে চাপা পরে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। রাতেই লাশ নিয়ে যাওয়া হয় তাঁর বাবার বাড়ী ময়নামতির শাহদৌলতপুর গ্রামে। তাঁর এই মৃত্যুর খবরে পরিবারের সদস্যদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। মায়ের মৃত্যুর খবর শুনে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন রিম্বী। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় রিম্বীর মায়ের বাবার বাড়ি শাহদৌলতপুর প্রথম বার জানাযা নামাজ সম্পন্ন করা হয়। পরে লাশ পাঠানো হয় নিহতের স্বামীর বাড়ীতে।

মায়ের লাশ পাঠিয়ে দিয়ে রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এস.এস.সি পরীক্ষা দিতে আসেন রিম্বী। এ খবরটি জানাজানি হলে কেন্দ্র উপস্থিতিরাও শোকাহত হন। খবর পেয়ে রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শাহপরান আজাদ উপস্থিত হয়ে শোকাহত রিম্বীকে সান্তনা দেন। পরীক্ষা শেষে রিম্বী মায়ের দাফন সম্পন্ন করার জন্য বাবার বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: