কুমিল্লায় শিশুর গায়ে আগুন দিল সৎ মা!

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লায় রিফাত নামে ৮ বছরের এক শিশুর গায়ে আগুন দিয়েছে সৎ মা। আগুনে শিশুটির শরীরের ৮০ শতাংশ জলসে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। বর্তমানে তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

রিফাত কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার জলম ইউনিয়নের চিতড্ডা গ্রামের আ. খালেকের ছেলে। তার শরীরে আগুন দেয়ার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাষণ্ড সৎ মা ও বাবাকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মায়ের মৃত্যুর পর থেকে পরিবারের সদস্যদের অবহেলা ও সৎ মায়ের নির্যাতন সহ্য করে আসছে সে। রিফাতের বাবা খালেক মিয়া সদর দক্ষিণ উপজেলার বাগমারা এলাকায় হোটেলে কাজ করে। সে সুবাদে তিনি সদর দক্ষিণ উপজেলার বাগমারা এলাকার আনোয়ার মিয়ার বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করেন।

কিছুটা দুষ্টু প্রকৃতির হওয়ায় রিফাতকে প্রায়ই মারধর করতেন তার সৎ মা। সোমবার বিকালে কোনো এক অপরাধে তিনি রিফাতকে ঘরের ভেতর রশি দিয়ে বেঁধে তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে রিফাতকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে।

তাৎক্ষণিক তাকে ভর্তি করা হয় মেডিক্যালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আগুনে শিশু রিফাতের শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সদর দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন অর রশিদ জানান, শিশুর গায়ে আগুন দেওয়ার অভিযোগে বাবা ও সৎ মা দু’জনকে আটক করেছি। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তবে কি কারণে শিশুটির গায়ে আগুন দেয়া হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ