কুমিল্লায় ৩শ’ বছর পুরোনো বৌদ্ধ মন্দির সদৃশ স্থাপনা উদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার বাজার সংলগ্ন একটি জমির মাটি ভরাটের কাজ করার সময় বৌদ্ধ মন্দির সদৃশ্য একটিম স্থাপত্য পাওয়া গেছে। গত ১০ জানুয়ারী এটা উদ্ধার করার পর লুকিয়ে ফেলেছিল মাটি ভরাটের কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা। পরে ১৫ জানুয়ারী রাতে পুলিশ স্থানীয়দের সহযোগীতায় উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের নিমসার বাজার সংলগ্ন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরের বাড়ির পাশে জামাল মিয়া ছ’মিল স্থাপনের জন্য নিচু জমিতে  ট্রাক্টরযোগে আনা মাটি দিয়ে ভরাটের সময় আনোয়ার হোসেন নামের এক শ্রমিকের কোদালে শক্ত বস্তুর অস্তিত্ব প্রকাশ পায়। এসময় বিষয়টি মাটি ভরাটের কাজ তদারকির দায়িত্বে থাকা গাইবান্ধার স্বপন মিয়াকে জানালে তিনি বিষয়টি গুরুত্ব না দিয়ে চলে যায়। পরে আনোয়ার জিনিসটি তুলে মূর্তি সদৃশ্য দেখে সেটা গোপনে তার বাসায় নিয়ে পরিস্কার করে রেখে দেন।

বিষয়টি স্থানীয়দের মাঝে জানাজানি হলে গত ১৫ জানুয়ারী রাতে বুড়িচং থানার দেবপুর ফাঁড়ি পুলিশের এসআই সফিকুর রহমান, এএসআই আল-আমিন, আনিসসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পাশ্ববর্তী পরিহলপাড়া গ্রামের রফিক মিয়ার বাড়ি থেকে মূল্যবান স্থাপত্যটি উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, স্থাপত্যটি বৌদ্ধ মন্দির সদৃশ্য তিন স্তরের। এর উচ্চতা প্রায় ৬ ইঞ্চি, ওজন ১ কেজি ৩’শ গ্রাম।কুমিল্লা কোটবাড়ি যাদুঘরের কাষ্টডিয়ান আব্দুল্লাহ জানান, অমূল্য এই স্থাপত্যটি প্রায় সাড়ে তিনশত বছরের পুরোনো।

বর্তমানে এটি দেবপুর ফাঁড়ি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। পরবর্তীতে এটা প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে পুলিশ জানায়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ