কুমিল্লা দেবিদ্বারে বাড়ি-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়ে ছাই

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার পৌর এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আজ রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় পৌর এলাকার বানিয়াপাড়ায় টিন ব্যবসায়ী সাফর আলীর বাড়ির গ্যাস লাইন থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রাপাত হয়।

এ ঘটনায় আগুন নেভাতে আসা রাজীব ও ফজলে রাব্বী নামে দুই যুবক আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত রাজীবকে উদ্ধার করে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আর ফজলে রাব্বিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ সময় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে ফায়ার সার্ভিসের দুটি পানি ভর্তি ট্যাংক ও সড়কের অপর পাশের পুকুর থেকে পাইপের সাহায্যে পানি সরবরাহ করায় সড়কের দুই পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে সড়কের দুই পাশে দীর্ঘ যানজট দেখা দেয়। পরে প্রায় ৫০ মিনিট পর সড়কের যানবাহন চলাচল শুরু করে।

আগুনে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ডার আবদুস সামাদের তিন তলা বাড়ি ও বিপুলের স’মিলের আংশিক অংশ এবং সাফর আলী ও শহীদ মিয়ার বাড়ি ও দোকানসহ কয়েকজনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয়রা ও মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

কুমিল্লা মুরাদনগরের ফায়ার সার্ভিসের প্রধান মো. জহিরুল ইসলাম দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘এ ঘটনায় চারটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও তিনটি বাড়ির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আমরা বিকেল সাড়ে ৫টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনি। আগুণে আনুমানিক ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।’

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট (ভূমি) মোসা. সামসুন নাহার দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘গ্যাসের লাইজার থেকে আগুনের সূত্রাপাত হয়। মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়দের আন্তরিক সহযোগিতায় এক ঘণ্টার মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হলেও দুইজন আহত ছাড়া কারও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। যারা আগুন নেভাতে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ