কুমিল্লা নাঙ্গলকোটে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার বটতলী ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের নাসরিন আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। শনিবার দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে নাঙ্গলকোট থানার পুলিশ।

নিহত নাসরিন উপজেলার দৌলখাঁড় ইউনিয়নের বাম গ্রামের মৃত. আইউব আলীর মেয়ে।

নিহতের চাচা ফুলমিয়া জানান, গত বছর বটতলী ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের মীর হোসেনের ছেলে ইলিয়াস হোসেন সাগরের সাথে নাসরিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সে নেশা করে বাড়িতে এসে নাসরিনকে মারধর করতো।

গত ৫/৬ দিন আগে ঘর দেওয়ার কথা বলে ৪০ হাজার টাকা আমাদের কাছ থেকে নেয় সাগর। ওই টাকা নেশা করে উড়িয়ে দেয়। এ নিয়ে নাসরিনের সাথে মনমালিন্য চলছে সাগরের। এরপর শনিবার দুপুরে নাসরিনের শ্বশুর বাড়ি থেকে ফোন করে বলে নাসরিন মারা গেছে। খবর পেয়ে আমরা গিয়ে দেখি সেখানে পুলিশও আছে। নাসরিনের গলায় দাগ রয়েছে এবং আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল বলেও দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট থানার উপপরিদর্শক (এস.আই) মিজানুর রহমানের জানান, বটতলী ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল আলমের খবরে আমরা ওখানে যাই এবং মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ