কুবি প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিভাগের সেশন জটের প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন করে অবস্থান কর্মসূচী ও স্মারকলিপি জমা দিয়েছে।

সোমবার(৮ জুলাই) দুপুর একটায় বিভাগের সকল ব্যাচের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে হাতে বিভিন্ন লেখা সম্বলিত ব্যানার নিয়ে এ প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করে পরে বিভাগে সাতটি দাবী সম্বলিত স্মারক লিপি জমা দেন।

জানা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় রসায়ন বিভাগে এক বছর ছয় মাস থেকে শুরু করে সিনিয়র-জুনিয়র প্রায় প্রতিটি ব্যাচের কম বেশি জট রয়েছে, ফলে নিজের ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কিত এ বিভাগের প্রতিটি শিক্ষার্থী। কিন্তু ভয়াবহ এমন জট নিয়ে উক্ত বিভাগের বিভাগীয় প্রধানসহ সিনিয়র শিক্ষকগণ বরাবর জট নিরসনের আশ্বাস দিয়েও নিজেদের খামখেয়ালি মনোভাবের কারনে তা বাস্তবায়ন করতে না পারায় অনাস্থার সৃষ্টি হওয়ায় শিক্ষার্থীরা এমন আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন।

>>আরো পড়ুনঃ  পাসের হারে দেশ সেরা কুমিল্লা বোর্ড

এ ব্যাপারে কথা কথা বলতে গেলে অবস্থান কর্মসূচী পালনরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিনিয়র এক শিক্ষার্থী বলেন, “কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে একমাত্র রসায়ন বিভাগেই এমন ভয়াবহ জট রয়েছে। আমাদের বিভাগের ৮ম ব্যাচ এখনো অনার্স শেষ করতে পারেনি। কিন্তু একই সাথে অন্যান্য বিভাগের ৮ম ব্যাচ মাস্টার্সে শেষের পথে। শুধুমাত্র বিভাগের শিক্ষকদের হেয়ালি মনোভাবের কারনেই এমন হচ্ছে। শিক্ষকগণ একটু সচেতন হলেই এমন সমস্যা সমাধান সম্ভব।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অন্য আরেক সিনিয়র শিক্ষার্থী বলেন, “বিভাগের চেয়ারম্যান নিয়মিত বিভাগে না থাকা, সেমিষ্টারের ছয় মাস পার হলেও রেজাল্ট প্রকাশ না হওয়া, নিয়মিত ক্লাস পরীক্ষা না নেওয়া এ সমস্ত প্রবণতার কারনেই মূলত আমাদের বিভাগের সেশন জট দিন দিন বাড়তেছে। আমরা বার বার সেশন জট নিরসনের দাবী জানিয়ে আসলেও ডিপার্টমেন্ট কোন যথাযথ ব্যাবস্তা নিতে ব্যার্থ হয়েছে। যার ফলে আমরা অন্য কোন পথ না পেয়ে আন্দোলনে যেতে বাধ্য হয়েছি।”

>>আরো পড়ুনঃ  কুমিল্লা বোর্ডে এইচ এস সি পাশের হার ৭৭.৭৪%

এদিকে সার্বিক বিষয় নিতে কথা বলতে গেলে বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ সৈয়দুর রহমানকে তার কার্যালয়ে পাওয়া যায় নি, তবে তাকে ফোন করা হলে তিনি বলেন আমি অল্প কিছুদিন আগেই দায়িত্ব নিয়েছি, সেশন জট নিয়ে আমি বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেছি, আমরা একাডেমিক ডায়েরি যথাযথ বাস্তবায়ন করার মাধ্যমে আগামী এক থেকে দুই বছরের মধ্যে এ সমস্যা নিরসনের চেষ্টা করব।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: