গণতন্ত্র হরণ করে উন্নয়নের কথা বলা জনগণের সাথে প্রতারনা-জোনায়েদ সাকি

সদর দক্ষিণ প্রতিনিধিঃ গণসংহতি আন্দোলন এর ১৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে কুমিল্লা জেলা গণসংহতি আন্দোলনের উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর জিলা স্কুল রোডস্থ বধুয়া কমিউনিটি সেন্টারে আলোচনা সভা ও শুভানুধ্যায়ী সম্মিলন অনুষ্ঠিত হয়।

কুমিল্লা জেলা গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়কারী ইমরাদ জুলকারনাইন ইমন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন,রাজনৈতিক সংকট সংঘাত উত্তরণে গণসংহতি আন্দোলন ইতিমধ্যে জাতীয় সনদ উত্থাপন করেছে। গণতন্ত্র হরণ করে উন্নয়নের কথা বলা জনগণের সাথে প্রতারনা। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর অধীনে জাতীয় নির্বাচন এ দেশের জনগণ কখনো মেনে নিবে না। তিনি আরো বলেন, মুক্তিদ্ধে জনগণের আকাক্সক্ষার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ২০০২ সালে গণসংহতি আন্দোলন তার রাজনৈতিক আন্দোলন শুরু করেছে। এ দেশের মানুষের মুক্তির সংগ্রামকে বেগবান করতে গণসংহতি আন্দোলন সাধ্যের সবটুকু দিয়ে মানুষের পাশে থেকে সংগ্রাম সংগঠিত করার চেষ্টা করেছে। এই পথ চলায় বাংলাদেশের অসংখ্য মানুষকে পাশে নিয়ে গণসংহতি আন্দোলন মানুষের নতুন আশার দল হিসেবে সু-পরিচিতি পেয়েছে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি কুমিল্লা জেলা গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়কারী ইমরাদ জুলকারনাইন ইমন তার বক্তব্যে বলেন, রাজনীতি করতে হবে নিজের ভাগ্য পরিবর্তন করার জন্য,ভবিষ্যত নির্মানের জন্য।পরিবার,সমাজ,ইউনিয়ন,উপজেলা ,জেলা,রাষ্ট্র সকল প্রতিষ্ঠানে ক্ষমতার ভারসাম্য তৈরী করতে হবে।এ সংগ্রাম নিজের সংগ্রাম। গণসংহতি আন্দোলন সেই সংগ্রামের ইকটি প্লাটফর্ম হয়ে উঠতে চায়। অনুষ্ঠানে অতিথিদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সাধারণ সম্পাদক জুলহাসনাইন বাবু,ফেনী জেলা সমন্বয়কারী এডঃ কায়কোবাদ সাগর, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন,জেলা গণসংহতি আন্দোলনের নির্বাহী সমন্বয়কারী হাবিবুর রহমান লিটন, জেলা সদস্য মাহাবুব মজুমদারসহ বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতৃবৃন্দ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ