চান্দিনায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পাড় হয় ছাত্র-ছাত্রীরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চান্দিনা উপজেলার বড়গোবিন্দপুর আলী মিয়া ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা প্রতিদিন জীবন ঝুঁকি নিয়ে দেশের ব্যস্ততম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক পাড় হয়। এতে প্রায়ই বেপরোয়া গতি সম্পন্ন গাড়ির সম্মুখীন হতে হয় তাদের। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে এই বিদ্যালয়ের ২জন শিক্ষার্থীর মৃত্যু এবং অন্তত ১০ জন শিক্ষার্থী পঙ্গুত্ব বরণ করেছে বলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহানারা নাছরিন জানিয়েছেন।

বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে চান্দিনা, পার্শ্ববর্তী বুড়িচং ও দেবিদ্বার এই তিন উপজেলার প্রায় ১২ শত জন ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়নরত রয়েছে। দেবিদ্বার ও বুড়িচং উপজেলার ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু এবং ছুটির পর মহাসড়ক পারি দিয়ে বাড়ি ফিরতে হয়। দুর্ঘটনা প্রবণ এই স্থানটিতে একটি ফুট ওভার ব্রিজ তৈরী করা হলে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা আসবে বলে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা দাবি জানিয়েছেন।

সরেজমিনে শনিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে জীবন ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক পাড় হতে দেখা যায়।

বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র আবদুল্লাহিল রাফি জানায়, ‘আমরা প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পাড় হই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট অনুরোধ এখানে একটি ফুট ওভার ব্রিজ করে আমাদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।’

বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী নাদিয়া সুলতানা বলেন, ‘আমাদের অনেক ভাই বোন সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে পঙ্গু হয়েছেন। দুই জন মারা গিয়েছেন। এখানে একটি ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণ অত্যন্ত জরুরী।’

এব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা এবং চান্দিনা উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সদস্য জাহানারা নাছরিন বলেন- ‘আমাদের বিদ্যালয়ে প্রায় ১২ শত শিক্ষার্থী রয়েছে। এদের মধ্যে দুইতৃতীয়াংশ শিক্ষার্থী সড়ক পাড় হয়ে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করে। তাদের নিরাপত্তার কথা ভেবে বিদ্যালয় শুরুর আগে এবং ছুটির সময় শিক্ষকরা লাল পতাকা উঁচিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের রাস্তা পাড়াপাড় করে দেন।’

তিনি আরও জানান, ‘উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সভায় আমি এই বিষয়টি তুলে ধরে ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহায়তা পাওয়ার চেষ্টা করেছি। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় এনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ একটি ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণ করে দিলে আমরা উপকৃত হবো।’

এব্যাপারে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সভাপতি এস.এম জাকারিয়া বলেন- ‘জেলা সড়ক নিরাপত্তা কমিটির সভায় শিক্ষার্থীদের জীবন ঝুঁকির বিষয়টি আমি উপস্থাপন করেছি। এই উপজেলার তিনটি স্থানে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ফুট ওভার ব্রিজ স্থাপনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। এর মধ্যে এই বিদ্যালয়ের সামনে একটি ফুট ওভার ব্রিজ স্থাপনের প্রস্তাবনাও রয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুর পৌঁনে ২টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের এই বিদ্যালয়ের সামনে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় বড়গোবিন্দপুর আলী মিয়া ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পাশ করে চান্দিনা মহিলা ডিগ্রি কলেজে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত দুইজন ছাত্রী নিহত হয়। নিহতরা হলো- দেবিদ্বার উপজেলার প্রেমু গ্রামের আব্দুল ওহাবের এর মেয়ে পপি আক্তার (১৮), একই গ্রামের মরিয়ম আক্তার মুনমুন (১৮)।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ