চান্দিনায় মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় সুমন মিয়া নামে এক যুবককে কুপিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। রবিবার রাতে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার সুইলপুর ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। সুমন মিয়া ওই গ্রামের বারেক মিয়ার ছেলে । আহত অবস্থায় তাকে চান্দিনা সরকারী হাসপাতালে নেয়ার পথে হামলাকারীদের হুমকির কারনে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্বজনরা। বর্তমানে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। থানায় অভিযোগ করলে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়ায় হামলার ঘটনা পুলিশকে জানাননি বলে ছোট ভাই বাবু জানান।

আহত সুমন মিয়া জানান, চেয়ারম্যান ইমন সরকারের ভাই রাসেল ও আল আমিন এলাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসা থেকে শুরু করে বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়ায়। চেয়ারম্যানের ভাই হওয়ায় ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। আমি প্রতিবাদ করায় রাসেল ও আল আমিন ১০/১২ জন সন্ত্রাসী নিয়ে রবিবার আমার উপর হামলা করে। চান্দিনা সরকারী হাসপাতাল যাওয়ার পথে হুমকি আসে সেখানে আবার হামলা করবে। তাই দাউদকান্দি এসে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। প্রাণের ভয়ে থানায় অভিযোগ করছি না।

ইউপি চেয়ারম্যান ইমন সরকার মুঠোফোনে অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, আমার ভাই মাদক ব্যবসা বা সেবন কোনটার সাথেই জড়িত নেই। তবে আমার এলাকাটি মাদক অধ্যুসিত হওয়ায় গত মাসে উপজেলার সমন্বয় কমিটির মাসিক সভায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছি। আরর সাতগ্রাম নামে এলাকাবাসী একটি মৎস্য প্রকল্প করেছে। এর পরিচালক মান্নান সরকারের সাথে সুমন মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে আমি শুনেছি।

চান্দিনা থানার ওসি(তদন্ত) আসাদুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে মৌখিক বা লিখিত কোন অভিযোগ পায়নি। এখন আপনার( সাংবাদিক) জেনেছি বিষয়টি আমি তদন্ত করে দেখছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ