মো: ওমর ফারুকঃ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ডাকাতিয়া নদী থেকে শুভপুর ইউপির গোবিন্দপুর বাজার, ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে পুরো এলাকায় ভাংঙ্গন দেখা দিয়েছে। নদী থেকে এসব বাুল উত্তোলনের ফলে নদী হারাচ্ছে তার স্বাভাবিক গতিপথ। যদিও ২০১০ সালের বালু মহাল আইনে, বিপণনের উদ্দেশ্যে কোনো উনমুক্ত স্থান, চা-বাগান ছাড়া নদীর তলদেশ থেকে বালু বা মাটি উত্তোলন করা যাবে না মর্মে নির্দেশনা থাকলেও তা মানছে না স্থানীয় প্রভাবশালীরা।

সরেজমিন গিয়ে ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ডাকাতিয়া নদীতে ড্রেজার দিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন চলছে। । এ ভাবে ডাকাতিয়া নদী থকে বালু উত্তোলনের ফলে নদীর পাশে ফসলী জমি হুমকির মুখে পড়ছে। ক্ষতির আশংকা থেকেই ইতিপূর্বে স্থানীয় কয়েকজন বালু উত্তোলন বন্ধের জন্য চৌদ্দগ্রাম প্রশাসনের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে । ডাকাতিয়া নদী থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনকারীদের একজন গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে রবিউল হক সরদার, দীর্ঘদিন ধরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছে। তিনি জানান,নদী থেকে বালু উত্তোলন করছি সরকারি জায়গা থেকে, অনুমতি নিয়ে বালু তুলছি। আমি মেশিন বন্ধ করবো না।প্রশাসনকে জানিয়ে বালু তোলা হচ্ছে। অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে ফসলী জমি,বসত ঘর, ব্রীজ,বাজার হুমকির মূখে রয়েছে।অন্যদিকে পরিবেশ বিপর্যয়ের আশংকা বাড়ছে।

>>আরো পড়ুনঃ  সব বাঁধা পেরিয়ে এইচএসসিতে সেই প্রতিবন্ধী আরিফের সাফল্য

এবিষয়ে শনিবার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) দীপন দেবনাথ জানান, ডাকাতিয়া নদী থেকে বালু উত্তোলন কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর স্থানীয়দের অভিযোগ প্রশাসন ব্যবস্থা না নেয়ার কারনে নদীতে ড্রেজার মেশিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ