দেশের অন্যতম সেরা ইউটিউবার সালমান মুক্তাদির ও ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া ইসলামকে নিয়ে চারদিকে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করেছে। তাদের প্রেম, বিয়ে নিয়ে বেশ কিছুদিন আগে মিডিয়াপাড়ায় চলছিল কানাঘুষা। বেশ কিছুদিন আগে একটি রেডিও স্টেশনে এসেও তারা তাদের সম্পর্কের সকল বিষয়ই জানিয়েছেন।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, জেসিয়া ইসলাম মাঝরাতে প্রেমিক সালমান মুক্তাদিরের বাড়িতে যান। এ সময় নিরাপত্তারক্ষীদের দরজা খুলতে বললে তারা সেটি খুলেন না। এরপরই জোরে জোরে দরজা পেটাতে শুরু করে জেসিয়া। এক পর্যায়ে নিচে নেমে আসে সালমানের মা। তাকে দরজা খুলতে বলা হলে তিনিও সেটি খুলেন না। এরপর ইট দিয়ে ভাঙচুর শুরু করেন জেসিয়া। এমনকি অশালীন ভাষায় গালিগালাজও করেছেন তিনি।

গভীররাতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে এমন কাণ্ডের বিষয়টি জানতে জেসিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

অপরদিকে, সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিডি২৪লাইভকে বলেন, ‘আমাদের মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই এ রকম ঘটনা হয়। আমি জেসিয়াকে আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করি তাকে খুশি রাখার। যেহেতু আমার অতীত খারাপ তাই সে এখনও ভাবে যে আমি আগের মতোই আছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ও (জেসিয়া) ঠিক কি কারণে এমন সিনক্রিয়েট করলো এটা আমি আসলে জানি না। যখন এ ঘটনা টা ঘটেছে তখন আমি ঘুমিয়েছিলাম। ঘুম থেকে উঠে দেখি যা হওয়ার তা হয়ে গেছে। এরপর তেমন বেশি কথা হয়নি ওর সাথে। আর বিষয়টি তেমন বড় ভাবে নেয়ার কিছুই নেই।’

উল্লেখ্য, এর আগে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলামের ফেসবুকের একটি স্ট্যাটাস সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছিল। যেখানে তিনি অভিনেতা সালমান মুক্তাদিরের বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ করেছিলেন। একই সঙ্গে তার সঙ্গে সালমান মুক্তাদিরের চ্যাটিংয়ের বেশ কিছু স্ক্রিন শটও ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন জেসিয়া।

জেসিয়া ইসলাম ২০১৭ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ সুন্দরী প্রতিযোগিতার বিজয়ীর মুকুট অর্জন করেন। এরপরই আলোচনায় চলে আসে তার নাম। অপরদিকে, ইউটিউবার হিসেবে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেন সালমান মুক্তাদির।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ