‘তনুশ্রী আমাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে’

ডেস্ক রিপোর্টঃ প্রাক্তন বলিউড তনুশ্রী দত্ত খবরের শিরোনাম হওয়ার পর থেকেই তার পাশে শিরোনামে জায়গা করে নিয়েছেন আরও এক অভিনেত্রী। তিনি হলেন- রাখি সাওয়ান্ত।

সমালোচিত এই অভিনেত্রী এতদিন ধরে বলছিলেন, তনুশ্রী দত্ত নাকি পাবলিসিটির জন্য নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলেছেন। তবে এবার তার অভিযোগ আরও ভয়ঙ্কর।

বুধবার (২৪ অক্টোবর) সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে নিজের উপর হওয়া যৌন নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন তিনি। রাখির বিস্ফোরক দাবি, তনুশ্রী নাকি তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। এখানেই শেষ নয়, রাখির দাবি করেন, তনুশ্রী দত্ত বাইরে থেকে মেয়ে হলেও আসলে তিনি একজন ছেলে।

একইসঙ্গে বলিউড অভিনেতা অলোক নাথের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ প্রসঙ্গে রাখি সাওয়ান্ত বলেন, ‘যে মানুষ নিজের যৌবনেই কিছু করতে পারলেন না, তিনি বার্ধক্যে এসে কী করবেন? উনি বাবার চরিত্রে অভিনয় করেন।’

এছাড়াও গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক অনু মালিককে নিয়ে রাখি বলেন, ‘আমি অনু মালিকের সঙ্গে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটিয়েছি। কখনও আমাকে ছুঁয়েও দেখেননি তিনি।’

পাশাপাশি বলিউড অভিনেতা নানা পাটেকরকে নিয়ে তনুশ্রী দত্তের করা যৌন নির্যাতনের অভিযোগকেও ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দেন রাখি সাওয়ান্ত।

রাখির কথায়, নানা পাটেকর মহারাষ্ট্রের গর্ব। নানার বিরুদ্ধে নোংরা অভিযোগ করা হলে তিনি তার প্রতিবাদ করবেন। এবং এভাবেই করবেন।

তিনি বলেন, #মি টু আন্দোলনের নামে বলিউডকে বদনাম করা হচ্ছে। এর ফলে প্রযোজকরা অভিনেত্রীদের সঙ্গে কথা বলতেই ভয় পাবেন, অনেকেই কাজ পাবেন না বলেও মন্তব্য করে তিনি।

রাখি সাওয়ান্ত আরও বলেন, ‘শুধু বলিউডেই এমনটা হচ্ছে তা তো নয়। রাজনীতিতেও হয়। আরও অনেক জায়গাতেই হচ্ছে।’ তার প্রশ্ন, কেন স্রেফ বলিউডকেই বদনাম করা হচ্ছে।

এদিকে, রাখি সাওয়ান্তের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন তনুশ্রী দত্ত। মানহানির খোরপোশ হিসেবে ১০ কোটি টাকা চেয়েছেন রাখির থেকে। তনুশ্রীর আইনজীবী নীতিন সতপুতে জানিয়েছেন, ‘আমরা রাখি সাওয়ান্তের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছি। আমার মক্কেলের চরিত্র নিয়ে বেশ খারাপ মন্তব্য করেছেন। এই কারণে তাকে আমার মক্কেলকে ১০ কোটি টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে শাস্তি হবে তার।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ