মোঃ জুয়েল রানাঃ কুমিল্লা তিতাস উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়ন এর শাহাপুর গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন সরকারের সাথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ১৩ জুন রাতে একই গ্রামের মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে জামায়াত শিবিরের ক্যাডার রফিকুল ইসলাম ও অজ্ঞাত ৮/৯ জন নাসির উদ্দিন সরকারের বাড়ীতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। ওই প্রেক্ষিতে নাসির উদ্দিন সরকারের স্ত্রী মোসা. জানু আক্তার বাদী হয়ে কুমিল্লা আদালতে গত ২৪ জুন একটি মামলা দায়ের করে।

ভূক্তভোগী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন সরকার শাহপুর গ্রামের একজন জনদরদী মানুষ। তিনি এলাকার মসজিদ এ আসা যাওয়ার জন্য পুরো রাস্তা নিজ খরচে নির্মান করে দেন এবং সব সময় মসজিদ মাদ্রাস এতিমখানায় দান করেন। এ নিয়ে রফিকুল ইসলাম এর সাথে বিরোধের জের ধরে নাসির উদ্দিন সরকারের সাথে তর্ক বিতর্ক ও হাতাহাতি হয়। পরে নাসির উদ্দিন সরকারের উপর হামলা ও তার বাড়িতে ভাংচুরের করে রফিকুল ইসলাম গং। গুরুতর আহত নাসির উদ্দিন সরকার ঢাকায় প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য মালয়েশিয়া চিকিৎসাধীন আছেন।

এছাড়াও নাছির এর বড় বোন নাজিয়া বলেন, আমার ভাইকে হত্যা করার জন্য রফিকুল সহ তার সন্ত্রাসী বাহিনী কয়েকবার চেষ্টা করে। এবং ঘর বাড়ি ভাংচুর করে টাকা পয়সা লুটপাট করে নিয়ে যায়। রফিকুলসহ তার সন্ত্রাসী বাহিনীর গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবী করেন তিনি।

এদিকে রফিকুল ইসলাম গং মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাদী পক্ষকে নানা ধরনের হুমকী ধামকি দিয়ে যাচ্ছে এবং মামলাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য গুটি কয়েক তার অনুসারীদের নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করে। বর্তমানে নাসিরের স্ত্রী নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। রফিকুল ইসলাম গং এর নিকট থেকে নাসিরের পরিবারকে রক্ষায় যথাযত কর্তৃপক্ষে দৃষ্টি আকর্ষন করছে নাসিরের পরিবার।