দাউদকান্দিতে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের বাড়ীতে হামলা

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার দাউদকান্দিতে মাদক ব্যবসা ও জুয়ার প্রতিবাদ করায় ইউপি আ’লীগের সাধরণ সম্পাদকের বাড়ীতে হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা।

গতকাল মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় চালানো হামলায় দৌলতপুর ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ জমাদার আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গৌরীপুরে চিকিৎসাধীন আছেন। খবর পেয়ে দাউদকান্দি মডেল থানার উপপরিদর্শক আমিনুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানাযায়, দাউদকান্দির দৌলতপুর ইউনয়ন কুমিল্লা এবং চাদপুর জেলার সীমান্ত এলাকা হওয়া বহিরাগত মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের আনাগোনা দেখা যায়। দাউদকান্দির পুলিশ ধাওয়া করলে মতলব পালিয়ে যায় । এলাকায় মাদক ও জুয়ার মূলহোতা সোহাগ মিয়াজী ও তার ছেলে বলে জানান আহত মাকসুদ জমাদার।

তিনি জানান, সোহাগ মিয়াজী বহিরাগত লোকজন ডেকে এনে এলাকায় জুয়ার আসর বসান। এলাকার সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ করলে তাদের উপর বিভিন্ন কৌশলে হামলা করা হয়। সজিব নামে এক যুবকের উপর হামলার ঘটনায় রবিবার শালিস বৈঠক করেন এলাকাবাসী। ওই বৈঠকে ইউপি আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ জমাদার মাদক ও জুয়ার বিরুদ্দে দেয়া জোড়ালো বক্তব্যে একাত্বতা প্রকাশ করেন এলাকাবাসী। এর জের ধরেই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সোহাগ মিয়াজী ও তার ছেলে রায়হান, মহসিন সরকার পিয়াস, রাকিবসহ বহিরাগত ৫/৬জন কাউয়াদী গ্রামে মাকসুদ জমাদারের বাড়ীতে হামলা চালায়।

ইউপি চেয়ারম্যান মঈন চৌধুরী বলেন, এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারী ও জুয়ারীরা ঢাকা থেকে সন্ত্রাসী ভাড়া করা সন্ত্রাসী এনে হত্যার উদ্দেশ্যে মাকসুদ জমাদারের বাড়ীতে হামলা চালায়। আমি এ হামলার তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবী জানাই ।

দাউদকান্দি মডেল থানার উপপরিদর্শক আমিনুর রহমান জানান, কয়েকদিন আগে একটি সালিশ বৈঠক করায় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ