নাঙ্গলকোটে আগ্রহ হারাচ্ছে সরিষার চাষ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার কৃষকদের আগ্রহ কমেছে লাভজনক সরিষা চাষ । গত কয়েক বছর ধরে দাম কম, খরচ বেশি এবং প্রতিকুল আবহাওয়ার কারণে সরিষা চাষ না করে তারা এখন বেশি লাভের আশায় অন্য আবাদের দিকে ঝুঁকছেন। ফলে কমে যাচ্ছে এই উপজেলায় সরিষার চাষ।

উপজেলরা বিভিন্ন এলাকা সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, হেসাখাল গ্রামের কবির হোসেন ৫০ শতক জমিতে সরিষা চাষ করেন। তাও আবার ওই ইউপির উপ-সহকারি কৃষি অফিসার ইমাম হোসেন এর পরামর্শে।

উপজেলার মৌকরা ইউপির তালেচৌ গ্রামের কৃষক সাগর (৩৫) জানান, গত দু’’বছর ধরে ২ একর জমিতে সরিষার চাষ করছি। এতে প্রায় খরচ হয় ২০ হাজার টাকা। কিন্তু অধিক বৃষ্টি, শীতের কুয়াশায় ফুল ঝরে যায় ও বিভিন্ন রোগের কারনে লোকসান দিয়েছি। তাই এখন থেকে সরিষা চাষ করবনা বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ধান করেও তেমন সুবিধা পাই না। কৃষি অফিস থেকেও কিছুই পাই না।

এ বিষয়ে দৌলখাঁড় ইউপির উপ-সহকারি কৃষি অফিসার মো. ফারুক হোসাইন বলেন, এক সময় এ উপজেলায় প্রচুর পরিমানে সরিষা চাষ হত। গত দুই বছর ধরে অধিক বৃষ্টিপাত ও আবহাওয়া অনুকুলে না থাকায় কৃষকরা সরিষা কম চাষ করছে। তারা ঝুঁকচ্ছে অন্যন ফসল চাষের দিকে।

এ ব্যপারে গতকাল সোমবার নাঙ্গলকোট উপজেলা ভারপ্রাপ্ত কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ রেজাউল হক জানান, এ বার এ উপজেলায় প্রায় ৩শ, ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে।

ছবির ক্যাপশান: কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলরা হেসাখাল ইউপির হেসাখাল গ্রামের কবির হোসেনের সরিষা চাষকৃত জমিতে থেকে ছবিটি তুলা।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ