মো. ওমর ফারুকঃ চট্রগ্রাম-ফেনী-বাখরাবাদ গ্যাস সঞ্চালন সমান্তরাল পাইপ লাইন নির্মাণ প্রকল্পে নাঙ্গলকোটের মক্রবপুর, অশ্বদিয়া ও মাইরাগাঁও গ্রামের প্রায় দু‘শতাধিক পরিবারের ফসলিজমি, পুকুর, বাগান, বসতবাড়িঘরের জমি অধিগ্রহণ ও হুকুম দখলের টাকা প্রদান না করায় গ্যাস পাইপ লাইন নির্মাণ প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তারা মক্রবপুর গ্রামে একত্রিত হয়ে তাদের ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের টাকা না ফেলে কাজ করতে দিবে না বলে বিক্ষোভ সমাবেশ করে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

ভুক্তভোগী পরিবারগুলো জানান, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে চট্রগ্রাম-ফেনী-বাখরাবাদ গ্যাস সঞ্চালন সমান্তরাল পাইপ লাইন নির্মাণ প্রকল্পে তাদের ৭৬ ফুট জমি হুকুম দখল করলেও মাত্র ২৬ ফুট জমির ক্ষতিপূরণের জন্য তাদেরকে নোটিশ প্রদান করা হয়। এছাড়া অবশিষ্ট ৫০ ফুট জমি দুই বছর ব্যবহারের জন্য ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা থাকলেও এনিয়ে তাদেরকে কোন নোটিশ প্রদান করা হয়নি। মক্রবপুর গ্রামের আবুল হাশেম, আলী আক্কাছ, হেদায়েত উল্লা, হারেছ আহম্মদ, দেলোয়ার হোসেন, মাছুমা, ইসমাইল, আবুল কালাম, মাঈন উদ্দিন, শাহেদাপুর গ্রামের মনি বেগমসহ প্রায় শতাধিক পরিবার অভিযোগ করে বলেন, ভূমি অধিগ্রহণ ও হুকুম দখলের জন্য তাদের ৭৬ ফুট জমির মধ্যে মাত্র ২৬ ফুটের জন্য নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৫০ ফুটের কোন নোটিশ প্রদান করা হয়নি। কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে এখন পর্যন্ত কোন ক্ষতিপূরণের টাকা না দিয়ে গ্যাস লাইন নির্মাণের কাজ চলছে। আমরা কৃষি জমি, বসতঘর, পুকুর হারিয়ে এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছি। ক্ষতিপূরণের টাকা না পেয়ে আমরা ফসলিজমি, বসতঘর ছেড়ে কোথায়ও যেতে পারছিনা। ক্ষতিপূরণের টাকা দিয়ে গ্যাস পাইপ লাইন নির্মাণ করুরক আমাদের কোন আপত্তি থাকবে না। জমির উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ চাই।

>>আরো পড়ুনঃ  কুমিল্লা নগরী পানিবন্দি, জনদুর্ভোগ চরমে

উপজেলা নির্বাহী অফিসার দাউদ হোসেন চৌধুরী বলেন, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান টাকা জমা দিয়েছেন। ভোক্তভোগী পরিবারগুলো সঠিকভাবে কাগজপত্র জমা দিলে তারা টাকা পেয়ে যাবে।

এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো, সোহেল রানা বলেন, যারা ৭ ধারা নোটিশ পেয়েছে তারা ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়ে যাবে। অন্যান্য ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো তাদের জমির কাগজপত্র সঠিকভাবে জমা প্রদান করলে তারাও ক্ষতিপূরণ পাবে। এছাড়া অন্যান্য সমস্যাগুলো উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ