নাঙ্গলকোটে নিখোঁজের একদিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে নিখোঁজের একদিন পর মাবরুল হোসেন (২৬) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার মৌকরা ইউনিয়নের চাঁন্দগড়া গ্রামের একটি খাল থেকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধারের পর আজ বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মাবরুল উপজেলার জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়নের হাঁনগড়া গ্রামের মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাবরুল বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বাবুর্চি হিসেবে কাজ করতো। তাঁর ৫ বছর বয়সী শাহির নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মা ফাতেমা বেগমের সঙ্গে কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয় সে। এরপর থেকে তাঁর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরিবারের লোকজন এলাকার বিভিন্ন স্থানে এবং আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে যোগাযোগ করেও তাঁর কোন সন্ধান পাইনি।

সর্বশেষ গতকাল বুধবার রাতে চাঁন্দগড়া গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা খালের পাড়ে এক ব্যক্তির জুতা দেখতে পায়। এতে তাঁদের সন্দেহ হলে তাঁরা খালে নেমে খোঁজাখোজি শুরু করলে একপর্যায়ে ওই যুবকের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের মা ফাতেমা বেগম বলেন, মাবরুল নিখোঁজের দিন সন্ধ্যায় আমার সঙ্গে কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর থেকে তার কোন হদিস পাইনি। আর এখন ছেলের লাশ পেলাম। মাবরুলের স্ত্রী সাহেনা বেগম বলেন, কাজের কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তিনি। রাত গভীর হলেও ঘরে না ফেরায় তাঁর মুঠোফোনে অনেকবার কল দিলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট থানার ওসি মোহাম্মদ আইয়ুব বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে নিহতের গায়ে কোন আঘাতের চিহৃ পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে বলে জানান তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ