নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির বহিষ্কারাদেশ অবশেষে প্রত্যাহার

কুমিল্লা দক্ষিণ প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমনের সেই সমালোচিত বহিষ্কারাদেশ অবশেষে প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদ। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি মো.সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের এক জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমনের নিজ আবেদনের প্রেক্ষিতে তার উপর আরোপিত বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হলো।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ৪ মার্চ দুপুরে উপজেলা পরিষদের একটি অনুষ্ঠান অংশগ্রহন শেষে দুপুরের খাবার খেতে নাঙ্গলকোট পৌর বাজারের একটি হোটেলে গেলে ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমনকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জের ধরে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিশুর নেতৃত্বে ১০/১২ জন সন্ত্রাসী এই হামলা চালিয়েছে। পরে স্থানীয় লোকজন ছুঁটে এসে আশংকাজনক অবস্থায় সুমনকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। দীর্ঘ ১৮ সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা সুমন।

এদিকে, এ ঘটনার পর গত ৪ মার্চ রাতেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগ কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিশু ও নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমনকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হলো। কে›ন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। তবে হামলায় গুরুত্বর আহত সুমনকে এভাবে দল থেকে বহিষ্কার করায় বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে। অনেকে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কঠোর সমালোচনা করেন।

তবে অবশেষে মঙ্গলবার নিজের উপর থাকা বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমন। গতকাল বুধবার দুপুরে তিনি কালের কন্ঠকে জানান, অবশেষে সত্যের জয় হয়েছে। আমাকে আবারো ছাত্রলীগের কল্যাণে কাজ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। হামলায় আহত হবার পর সকলের যেই ভালোবাসা ও সহযোগীতা পেয়েছেন তাঁদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ