নরওয়ের প্রিন্স হাকন ম্যাগনাসের সঙ্গে হ্যান্ডশেক না করে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছেন তিন মুসলিম নারী। সম্প্রতি নরওয়ের বারেম শহরের আল-নূর ইসলামিক সেন্টার পরিদর্শনে এলে যুবরাজের সঙ্গে হাত মেলাতে ওই তিন মুসলিম নারী অপারগতা প্রকাশ করেন।

গত ১০ আগস্ট নরওয়ের রাজধানী অসলো থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই মসজিদটিতে মুসল্লিদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে বন্দুকধারীরা। সে সময় উগ্র জাতীয়তাবাদীদের গুলিবর্ষণের ঘটনায় এক ব্যক্তি আহত হয়েছিলেন।

এমন পেক্ষাপটে বারেম শহরের আল-নূর ইসলামিক সেন্টার পরিদর্শন আসেন নরওয়েজীয় যুবরাজ হাকন ম্যাগনাস। এ সময় স্থানীয় মুসলিমদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। মসজিদটি পরিদর্শনকালে উপস্থিত মুসলিম কমিউনিটির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে করমর্দনও করেন প্রিন্স। তবে তিন মুসলিম নারী এ সময় তার সঙ্গে হাত মিলাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

>>আরো পড়ুনঃ  নবম শ্রেণির মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করল সপ্তম শ্রেণির ছাত্র

এদিকে প্রিন্সের সঙ্গে এমন আকস্মিক ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে আল-নূর ইসলামিক সেন্টার কর্তৃপক্ষ।

আল-নূর মসজিদের ইনফরমেশন অফিসার ওয়াহিদ আহমদ জানান, প্রিন্সের আগমনের সময় এমন পরিস্থিতির বিষয়টি সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিত। এ কারণে, আমরা প্রিন্সের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।

ওয়াহিদ আহমদ জানান, প্রিন্স আসার আগে এ বিষয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। হ্যান্ডশেকের বিষয়টি আমাদের চিন্তায় ছিল না,তাই এ নিয়ে আমরা আলোচনা করিনি। যদি আমরা আগে জানতাম নারীরা তার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করবেন না, তাহলে আমরা আগেই প্রিন্সকে বিষয়টি অবহিত করতে পারতাম।