বরুড়ায় ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীর ধর্ষক কালাম গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জেলার বরুড়া উপজেলায় ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় ধর্ষক আবুল কালাম (২৭) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকা হাজারীবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। পুলিশ জানায়, আবুল কালাম পেশায় একজন সিএনজি চালক। প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্র জানায়, উপজেলার শিলমুড়ী (দঃ) ইউনিয়নের বাশপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়ার সময় বাশপুর গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে আবুল কালাম রাস্তার পাশে পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর এ ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য বলে এবং বললে হত্যার হুমকি দেয়।

পরে মেয়েটি কাউকে কিছু না বলে অসুস্থ্য হয়ে বাড়িতে পড়ে থাকে। মেয়েটির মা তাকে অসুস্থ্যতার বিষয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাবাদের পর সে তার মাকে বিস্তারিত খুলে বলে। এ ঘটনা জানার পর মেয়েটিকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে মুদাফ্ফরগঞ্জ এবং পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে।

বর্তমানে মেয়েটি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে গ্রামের লোকেরা আবুল কালামকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কালাম ও তার ভাইয়েরা মিলে মেয়ের বাবাকে এলোপাথারী মারধর করে তার ডান হাত ভেঙ্গে ফেলে। এ ঘটনাটি বরুড়া থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ জানার পর তাৎক্ষনিক ভাবে কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা মেয়েটিকে দেখতে যায় এবং বরুড়া থানায় মামলা গ্রহণ করেন।

পুলিশ জানায়, আবুল কালাম পেশায় একজন সিএনজি চালক। প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।