বাসে হামলার প্রতিবাদে কুবির শিক্ষার্থীদের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বাসে হামলার প্রতিবাদ এবং জড়িতদের বিচারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সকল ধরণের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন আমাদের বিচার হবে বলে আশ্বস্ত করলেও বিচারের পদক্ষেপ নেয়নি। তাই শিক্ষার্থীদের বাসে সন্ত্রাসী হামলার বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব।

মারধরের সময় ঘটনাস্থলে কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস সালাম উপস্থিত ছিলেন বলে এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানান। এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুঠোফোনে বলেন, ‘একটা বাসই শুধু ভাঙচুর করা হয়েছে। আর আমরা সহনীয় মাত্রায় কাজ করি। অনেক কিছুই হয়ত শোনা যাবে।’ তিনি ব্যস্ততার কথা বলে ফোন কেটে দেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, ‘আমরা ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। কুমিল্লা সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি তবে তারা জানিয়েছে যে, তাদের কোনো শিক্ষার্থী এ হামলায় জড়িত নয়।’

হামলায় পুলিশের অংশ গ্রহণের বিষয়ে কিছু জানেন কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আমরা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি তারা বিষয়টি অস্বীকার করেছে।

প্রসঙ্গত, রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একটি বাস শিক্ষার্থীদের বহনকারী একটি লাল বাস ও কর্মচারীদের বহনকারী একটি বাসে কুমিল্লা শহরে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। এতে প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি বাস ভাঙচুর করা হয়।

সূত্রঃ জাগোনিউজ

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ