ডেস্ক রিপোর্টঃ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড কুমিল্লার উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস-২০১৯ দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। (২ ডিসেম্বর) সোমবার বিকেলে বোর্ড মাঠে বেলুন উড়িয়ে মাসব্যাপী এ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো: আবদুস ছালাম।

উদ্বোধন কালে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কুমিল্লার চেয়ারম্যান প্রফেসর মো: আবদুস ছালাম বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এ বারেও আমরা কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছি। তারই ধারাবাহিকতায় অন্যান্য বছরের মত বোর্ডের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে স্বত:স্ফূর্ত ভাবে আমরা মহান বিজয় দিবস পালন করতে চাই। তাই সকল প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়া সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। তিনি আরো বলেন, বহু রক্তের বিনিময়ে আমরা এ প্রিয় জন্মভুমি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।

তাই আজকের এই দিনে স্বাধীনতার মহান স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করতে চাই। জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। তাই আসুন আজকের এ উদ্বোধনী দিনে সকলে মিলে ঐক্যবদ্ধ শপথ নিয়ে দেশ ও জাতির কল্যানে নিজেদের এগিয়ে যাই এবং দেশের এ অগ্রযাত্রাকে আরো বেগবান করতে নিজেদের বিলিয়ে দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করি।

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের কর্মচারী কল্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মকবুল আহমদ এর সঞ্চালনায় এসময় আরো বক্তব্য রাখেন, বোর্ডের সচিব নূর মোহাম্মদ ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মো: আসাদুজ্জামান। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন-বোর্ডর কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর মো: জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী, বিদ্যালয় পরিদর্শক মো: আজহারুল ইসলাম, উপ-পরিচালক (হিওনি) মোহাম্মদ ছানাউল্যাহ, উপ-বিদ্যালয় পরিদর্শক মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, উপ-কলেজ পরিদর্শক বিজন কুমার চক্রবর্ত্তী, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (সনদ) ড. মো: শফিকুল ইসলাম, উপ-সচিব (প্রশাসন) এ কে এম সাহাব উদ্দিন, উপ-বিদ্যালয় পরিদর্শক মোহাম্মদ জাহিদুল হক, উপ-সচিব (একাডেমি) মোহাম্মদ সাফায়েত মিয়া, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (উচ্চ মাধ্যমিক) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (মাধ্যমিক) মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, কর্মচারী কল্যান সমিতির সভাপতি মো: আব্দুল খালেক প্রমুখ। উদ্বোধনী দিনে ভলিবল খেলার মধ্যদিয়ে মাসব্যাপী কর্মসূচী শুরু হয়। এছাড়াও কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে আলোক সজ্জা, বিজয় র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর ম্যূরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, আলোচনা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও র‌্যাফেল ড্র।