বিভাগীয় পর্যায়ে সেরা কুমিল্লার ছেলেরা

ডেস্ক রিপোর্টঃ নিভে গেল মশাল। সাঙ্গ হলো মিলনমেলা। থেমে গেছে উৎসব। যুব গেমসে ঘিরে গত এক সপ্তাহ যে উৎসাহ, উদ্দীপনা আর উন্মাদনা ছিল সেটা শেষ হয়ে গেল গতকাল। কারণ গতকালই শেষ হয়ে গেছে যুব গেমসের চট্টগ্রাম বিভাগীয় আসর। যেখানে গত এক সপ্তাহ ১১টি জেলার প্রায় ৮০০ ক্রীড়াবিদের পদচারণায় মুখর ছিল চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়াম এবং সিআরবির শিরিষ তলা।

গতকাল বিকেলে সিআরবির শিরিষ তলায় গেমসের মশাল নিভিয়ে ফেলেন প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আ.জ.ম.নাছির উদ্দিন। আর সে সাথে গেমসের চট্টগ্রাম বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা জেলা দলের খেলোয়াড় কর্মকর্তাদের হাতে ট্রফি তুলে দেন।

গতকাল গেমসের শেষ দিনে ছিল দুটি ইভেন্ট। আর দুটি ইভেন্টেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিক চট্টগ্রাম। তরুণদের হ্যান্ডবলে ছিল দুটি দল। তাই তারা সরাসরি ফাইনালে খেলে। আর সে ফাইনালে বান্দরবান জেলা দলকে ২৭–১৮ গোলে পরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিক চট্টগ্রাম। অপরদিকে গতকাল সিআরবির শিরিষ তলায় শেষ হয়েছে তরুণদের ভলিবল প্রতিযোগিতা। আর সে ইভেন্টের শিরোপাও জিতেছে চট্টগ্রাম। ফাইনালে চট্টগ্রাম ৩–১ সেটে কুমিল্লা জেলাকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। এর আগে একই মাঠে প্রথম সেমিফাইনালে কুমিল্লা জেলা তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর ৩–২ সেটে কক্সবাজার জেলা দলকে পরাজিত করে ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। অপরদিকে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে স্বাগতিক চট্টগ্রাম জেলা দল ৩–২ সেটে বান্দরবান জেলা দলকে পরাজিত করে ফাইনালে উন্নীত হয়। আর ফাইনালেও শেষ হাসিটা হাসে চট্টগ্রাম শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে।

এদিকে গেমসের ১৩টি ইভেন্ট শেষে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কুমিল্লা জেলা দল। যুব গেমসের চট্টগ্রাম বিভাগীয় আসরে ১৭ স্বর্ণ পদক ও ১০ রৌপ্য পদকসহ মোট ২৭টি পদক জিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কুমিল্লা জেলা। অপরদিকে ১০ স্বর্ণ পদক ও ১ রৌপ্য পদকসহ মোট ১১টি পদক জিতে গেমসের রানার্স আপ হয়েছে স্বাগতিক চট্টগ্রাম জেলা।

গতকাল বিকেলে সিআরবি’ শিরিষ তলা মাঠে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের উপ–মহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু, বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দিন মো. আলমগীর, বান্দরবান পৌরসভা মেয়র এবং বান্দরবান জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মো. ইসলাম বেবী, কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান রোমেন, চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মহিলা বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদিকা হাসমত আরা, সাবেক জাতীয় শুটার সাবরিনা সুলতানা, মো. আতিকুর রহমান প্রমুখ। বাংলাদেশ যুব গেমসের চট্টগ্রাম পর্বের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লাকে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি ও রানার আপ চট্টগ্রামকে রানার আপ ট্রফি তুলে দেন ২৪ পতাদিক ডিভিশন, চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট, প্রতিনিধি এরিয়া কমান্ডার, লে. কর্নেল নাহিদ নেওয়াজ, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের উপ–মহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু।

বিভাগীয় পর্ব শেষে এখন অপেক্ষা জাতীয় পর্যায়ের আসরের। একেবারে উপজেলা পর্যায় থেকে উঠে আসা ক্রিড়বিদরা এখন বিভাগ সেরা হয়েছে। এই সেরাদের নিয়ে এবার গঠন করা হবে বিভাগীয় দল। যারা জাতীয় পর্যায়ে নিজেদের সেরা প্রমাণ করার চেষ্টা করবেন।