বিয়ের দুই মাস ১০ দিনের মাথায় সন্তান প্রসব করে হাসপাতালেই তালাকপ্রাপ্ত হয়েছেন চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কয়রাডাঙ্গা গ্রামের এক নারী। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কয়রাডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।আজ রোববার (২ জানুয়ারি) সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে বসেই বিয়ে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন উভয় পক্ষের অভিভাবকরা। এ ঘটনায় এলাকায় আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম জানান, ‘দুই মাস ১০ দিন আগে পৌর এলাকার ভিমরুল্লা গ্রামের এক যুবকের সাথে পারিবারিকভাবে আলমডাঙ্গার গ্রামের এক নারীর বিয়ে হয়। গত শনিবার রাতে (২ জানুয়ারি) শ্বশুর বাড়িতেই একটি পুত্র সন্তান প্রসব করে ওই নারী। প্রসবের পর নবজাতকটি অসুস্থ হলে রবিবার সকালে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়।

ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম আরো জানান, বিষয়টি নিয়ে রবিবার সকালেই দুই পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল চত্বরে একত্রিত হয়। পরে উভয় পক্ষের সম্মতিতে তালাক সম্পন্ন করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: