বুড়িচংয়ে ডায়গনস্টিক সেন্টারগুলিতে অভিযান

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ বুড়িচংয়ে হাসপাতালসহ ডায়গনস্টিক সেন্টারগুলিতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকিয়া আফরিন। অভিযানে একটি ডেন্টাল কেয়ার সিলগালাসহ তিনটি ডায়গনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা করে আদায় করা হয়।

দীর্ঘদিন ধরে বুড়িচং উপজেলা সদরের ৩১ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কপ্লেক্সটি দালাল চক্রের কাছে জিম্মি হয়ে পরে। সদর বাজার এলাকার কয়েকটি ডায়গনস্টিক সেন্টারের নিয়োগকৃত দালালদের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে পড়ে সাধারন রোগীরা। তাছাড়া ডায়গনষ্টিক সেন্টারগুলিতে নেই পর্যাপ্ত যন্ত্রপাতি, নেই কোন ট্যাকনিশিয়ান। শুধুমাত্র অনুমানের ভিত্তিতে দেয়া হচ্ছে পরীক্ষার রিপোর্ট। এছাড়া ডায়গনস্টিক সেন্টারগুলির পরিবেশ অত্যান্ত নোংরা, একই রুমে পরীক্ষা-নিরিক্ষা, খাওয়া-দাওয়া, টয়লেট ব্যবহার করা হচ্ছে।

সকাল ১১ টায় বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রথমে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়। অভিযানের সংবাদ শুনে দালল চক্রগুলি পিছন দিয়ে সটকে যায়। পরে হাসপাতাল গেইট এলাকায় হেপী মেডিকো এন্ড ডক্টস্ সেন্টার, পুপলার ডায়গনস্টিক সেন্টার, আদম খাঁ ডায়গনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে পুপলাল ডায়গনস্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার, আদম খাঁ ডায়গনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা, হাসপাতালে প্রবেশের রাস্তায় গাছ রাখায় শ্যামলী স্ব-মেইল ও মদিনা স্ব-মেইলেকে ২ হাজার করে মোট ৪ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়। পরবর্তীতে উত্তর বাজার এলাকায় সানমুন ডায়গনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে অভিযান চালিয়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়। সর্বশেষ বুড়িচং উপজেলা রোডে অবস্থিত গাজী ডেন্টাল কেয়ারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। গাজী ডেন্টাল কেয়ারের ডাক্তার কোন সার্টিফিকেট দেখাতে না পারায় ও পর্যাপ্ত যন্ত্রপাতি না থাকায় ডেন্টাল কেয়ারটি সিলগালা করে দেয় ভ্রাম্যমান আদালতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রাট বুড়িচং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকিয়া আফরিন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার মোঃ মনিরুল ইসলাম, বুড়িচং থানা পুলিশের এস আই কামাল হোসেন ও সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স। এদিকে ভ্রাম্যামান আদালতের অভিযানের খবর পেয়ে বুড়িচং ডায়গনস্টিক সেন্টার, মেডিকেয়ার ডায়গনস্টিক সেন্টার, আলিফ ডায়গনস্টিক সেন্টার, ডাঃ শাহীন আল্টাসনোগ্রাফি সেন্টার, ইয়াকুত ডায়গনস্টিক সেন্টারের মালিকগন বাহির দিয়ে তালা লাগিয়ে পালিয়ে যায়।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা শেষে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রাট বুড়িচং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকিয়া আফরিন বলেন, এই অভিযান অব্যহৃত থাকবে। হাসপাতালের অর্ভন্তরে দালাল কিংবা ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিরা প্রবেশ করতে পারবে না। যে সকল ডায়গনস্টিক সেন্টার তালা বদ্ধ আছে পর্যাক্রমে তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা দেয়া হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ