বুড়িচং(কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বারিপাড়া গ্রামের অটোরিক্স চালাক মো: হাসান হত্যার অন্যতম আসামী রবিন (২২)কে বুড়িচং থানার দেবপুর পুলিশ ফাড়িঁর এস আই শাহীন কাদির সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে কোট বাড়ী সালমান পুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে।সোমবার আসামী রবিনকে কুমিল্লা আদালতে হাজির করলে ম্যাজষ্ট্রিট এর নিকট ১৬৪ধারায় স্বীকার উক্তি মূলক জবান বন্দি দেয়।

পুলিশ জানায় জেলার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের বারিপাড়া গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ইজিবাইক চালক হাসানকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ২৩ ডিসেম্বর দুপুরে একই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মোহন, তার কলেজ পড়–য়া ছেলেসহ ৮/১০ জন প্রকাশ্যে পিটিয়ে হাত-পা ভাঙ্গাসহ গুরুতর জখম করে। পরে স্থানীয়রা মুমূর্ষূ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দিন সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় নিহতের ভাই হোসাইন বাদী হয়ে সাবেক ইউপি সদস্য মোহন, তার ছেলেসহ ৯জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

>>আরো পড়ুনঃ  মুরাদনগরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

অভিযোগ রয়েছে হাসানকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে ৭/৮জন বহিরাগত সন্ত্রাসী ভাড়া করে বাড়িতে এনে অবস্থান করান।মামলা দায়ের করার পর থেকে সকল আসামী গা-ডাকা দেয় । গত রোববার রাতে দেবপুর পুলিশ ফাড়িঁর এস আই মো;শাহীন কাদির সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লার কোট বাড়ি সালমানপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে আত্ম গোপন থাকা রবিন নামের এক ভাড়াটে খুনিকে গ্রেফতার করে।সে মোহন মিয়ার মেম্বারের কলেজ পড়–য়া ছাত্র শাহ জালালের বন্ধু । জেলার মুরাদ নগর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে কলেজ পড়–য়া ছাত্র মো: রবিন (২২)।

সোমবার কুমিল্লা ২নং আমলী আদালতের জুডিয়াসিয়া ম্যাজিষ্ট্রিট রোকেয়া আ্ক্তারের নিকট আসামী রবিনকে হাজির করলে ১৬৪ধারা স্বীকার উক্তি মূলক জবান বন্দি দেয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ