কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণির দুই ছাত্রীকে ইভটিজিং ও শালীনতা হানির অপরাধে বিল্লাল হোসেন(৩৫) নামের এক যুবককে ভ্রাম্যমান আদালতে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরী।

জানা যায়, রবিবার সকালে উপজেলার ছোটধুশিয়া এলাকার দুই মাদ্রাসা ছাত্রী প্রাইভেট পড়তে যাবার সময় একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় উঠার পর উপজেলার বাড়ানী এলাকার মৃত মকবুল হোসেন প্রকাশ মোহন মিয়ার ছেলে মো: বিল্লাল হোসেন(৩৫) একই অটোরিক্সায় উঠে। পেছনের সিটে পাশাপাশি বসে ওই যুবক দুই মাদ্রাসা ছাত্রীর স্পর্শ কাতর স্থানে হাত দেয়ার চেষ্টা করতে থাকলে মেয়েরা ড্রাইভারকে গাড়ি থামাতে বললেও ড্রাইভার তাদের কথায় কর্ণপাত না করায় চান্দলা পদুয়া খামার ছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এসে এক ছাত্রী নিজের সম্মান বাচাতে অটোরিকশা থেকে লাফ দিয়ে রাস্তায় পড়ে যায়।

তখন স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় বিল্লাল হোসেনকে আটক করে থানায় খবর দিলে থানার এসআই জীবন ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিল্লালকে গ্রেপ্তার করে উপজেলা কমপ্লেক্সে সহকারি কমিশনার (ভূমি) ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরীর আদালতে হাজির করে।

শিক্ষার্থীদের শালীনতা হানির অপরাধে দন্ডবিধির ১৮৬০ এর ৩৫৪ ধারায় বিল্লালকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: