সংসদে বানরের জন্য বরাদ্দ চাইলেন শাজাহান খান। মাদারীপুরে নিজ নির্বাচনী এলাকায় বানরের জন্য বিশেষ অর্থ বরাদ্দ ও প্রকল্প চেয়েছেন সরকারি দলের সাংসদ শাজাহান খান। সোমবার (২০ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে জরুরি জনগুরুত্বসম্পন্ন বিষয়ে মনোযোগ আকর্ষণের নোটিশের আলোচনায় শাজাহান খান এই দাবি তোলেন।

শাজাহান খান বলেন, ১৯৯৮ সালে আওয়ামী লীগ সরকার এই বানরগুলোর জন্য খাবার সরবরাহ করেছিল। বর্তমানে সরবরাহ না থাকায় বানরগুলো রাস্তায় মানুষের খাবার ছিনিয়ে নেয়, দোকান থেকে খাবার ছিনিয়ে নেয়, বাড়ি বাড়ি গিয়ে অত্যাচার করে খাবার ছিনিয়ে নেয়। এখানকার জনগণ বানরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ। বানরগুলোকে রক্ষায় তাদের খাদ্যের জন্য অর্থ বরাদ্দ ও প্রকল্প নেয়া জরুরি। মাদারীপুরে বানর আসার ইতিহাস উল্লেখপূর্বক শাজাহান খান বলেন, মাদারীপুর পৌরসভার চরমুগুরিয়া বন্দর পাট ব্যবসার জন্য প্রসিদ্ধ। এখান থেকে হাজার হাজার মন পাট ভারতে রফতানি হতো।

এই সাংসদ আরও জানান, জনশ্রুতি আছে ভারতের তুলারাম বসুরাজ শখের বসে দুটি বানর এখানে এনেছিলেন। সেই সংখ্যা বাড়তে বাড়তে বানরের সংখ্যা এখন প্রায় দুই হাজার। স্বাধীনতার পর তুলারাম গোডাউন আদমজী পাটকলের গুদাম হিসেবে ব্যবহৃত হতো। সেখানকার একজন কর্মকর্তা বানরগুলোকে খাবার দিতেন। ১৯৯১ সালে বিএনপি ওই গোডাউন বিক্রি করে দেয়। এরপর বানরগুলোকে খাবার দেয়া বন্ধ হয়ে যায়। যার ফলে এ প্রাণীগুলো অসহায় হয়ে পড়েছে। মানবিক কারণে তাদের খাবার দেয়া প্রয়োজন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: