মুরাদনগরে পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহ পালিত

মুরাদনগর সংবাদদাতাঃ ‘‘পরিকল্পিত পরিবার গড়ি, মাতৃমৃত্যু রোধ করি’’ এই প্রতিপাদ্যকে মূল স্লোগান করে গত বছরের ৩০শে ডিসেম্বর শুরু হওয়া ‘পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহ’ ব্যাপক প্রচার ও কর্ম বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে ৪ঠা জানুয়ারী বিকালে সমাপ্ত করেছে মুরাদনগর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়।
পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহের প্রথম দিনে (৩০শে ডিসেম্বর) উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো: মিজানুর রহমান উপজেলার সাংবাদিকদের সাথে এ্যাডভোকেসি সভা করেন এবং এফপিআই, এফডব্লিওএ, এফডব্লিওভি ও ছাকমোদের সমন্নয়ে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে উঠান বৈঠক ও পরিবার পরিকল্পনার অস্থায়ী পদ্ধতির সেবা প্রদান করেন।

২য় দিনে (৩১শে ডিসেম্বর) এফপিআই, এফডব্লিওএ, এফডব্লিওভি ও ছাকমোদের সমন্নয়ে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পরিবার পরিকল্পনা কমিটির সভা এবং পরিবার পরিকল্পনার অস্থায়ী পদ্ধতির সেবা প্রদান করেন। ৩য় দিন(১লা জানুয়ারী) যাত্রাপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে ইমপ্লান্ট ও আই,ইউ,ডি ক্যাম্প সংঘটন করা হয়। ৪র্থ দিন (২রা জানুয়ারী) ধামঘর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে ইমপ্লান্ট ও আই,ইউ,ডি ক্যাম্প সংঘটন করা হয়।

৫ম দিন (৩রা জানুয়ারী) কামাল্লা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে ইমপ্লান্ট ও আই,ইউ,ডি ক্যাম্প সংঘটন করা হয়। ৬ষ্ঠ ও শেষ দিন(৪ঠা জানুয়ারী) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনএসভি, লাইগেশন, ইমপ্লান্ট ও আই,ইউ,ডি সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো: মিজানুর রহমান জানান, পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহে আমরা স্থায়ী পদ্ধতি এনএসভি করাতে না পারলেও টিউবেকটমি করিয়েছি ২৪জনকে, দীর্ঘ মেয়াদী পদ্ধতিতে আইইউডি ৯০জন ইমপ্লান্ট গ্রহন করেছেন ১২৬জন। অস্থায়ী পদ্ধতিতে ইনজেকটেবল নিয়েছেন ৪০৬জন, খাবার বড়ি নিয়েছেন ৬৪৮জন, কনডম পদ্ধতি নিয়েছেন ২৬৬জন। এছাড়াও মা ও শিশুর স্বাস্থ্য সেবা, কিশোর-কিশোরীর স্বাস্থ্য সেবা এবং সাধারন রোগী সেবায় ৩হাজার ২শত ৫৮জনকে সেবা প্রদান করা হয়। পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহে সব মিলিয়ে ৪হাজার ৮শত ১৮জনকে সেবা প্রদান করা হয়েছে যাতে লক্ষ্যমাত্রায় প্রায় অধিকাংশ অর্জিত হয়েছে।