জীবনের মায়া কাটিয়ে না ফেরার দেশে পারি জমিয়েছেন জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ। আজ শনিবার (৬ এপ্রিল) দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে স্কয়ার হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তার মৃত্যুতে শোবিজ অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

টেলি সামাদের সঙ্গে অনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা অঞ্জনা। তিনি তার সঙ্গে স্মৃতিচারণ করে ফেসবুকে লিখেন, আমার জীবনের প্রথম মুক্তি প্রাপ্ত চলচ্চিত্র দশ্যুবনহুর ছবি থেকে টেলি ভাই এর সাথে আমার পারিবারিক সম্পর্ক। সবসময় ওনার সাথে আমার যোগাযোগ ছিল। টেলি ভাই নেই কথাটি শুনেই বুকের ভিতর ধাক করে উঠলো! এইতো সেদিন আমি ধানমন্ডি তে একটি অনুষ্ঠানে হঠাৎ টেলি ভাই এর বড় মেয়ে আমাকে কল করলেন আন্টি বাবার অবস্থা খুবই খারাপ আমরা পিজি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করেছি বাবাকে। আমি এক মুহূর্ত দেরি না করে সঙ্গে সঙ্গে পিজি হাসপাতালে গিয়ে উপস্থিত হই!

>>আরো পড়ুনঃ  আফিফের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে হতাশার ম্যাচে বাংলাদেশের জয়

আমাকে দেখে আমার মনে হলো টেলি ভাই যেনো সুস্থ হয়ে গেছে। উনি কথা বলতে পারছিলেন না তারপরও আমাকে কষ্ট করে কত কথা জিজ্ঞাসা করলেন। আমি কাঁদছিলাম উনি বলল আরে অঞ্জনা কান্না করিসনা আমি সুস্থ হয়ে যাবো। তুই আমাকে দেখতে এসেছিস হাসি মুখে থাক তাহলে আমার ভালো লাগবে। ওনি একটু কষ্ট নিয়ে বললেন তুই আর জায়েদ খান ছাড়া আমাকে একটি লোক দেখতে আসল না এতটা দিন যাবত অসুস্থ এই কথাটি বলে দীর্ঘ নিশ্বাস নিল। আরে কত কাজ করেছি সবার সাথে আজ অসুস্থ হয়ে পড়াতে কেউ খোঁজ নেয় না বলে কেঁদে দিলেন। আমি বললাম টেলি ভাই কেউ না আসুক আমি তো এসেছি। ওনি বললেন হ বোন। আজ এই কথাগুলো বার বার মনে পড়ছে।

>>আরো পড়ুনঃ  আমরা ‘বলির পাঠা’, ষড়যন্ত্র পরিষ্কার হয়েছে: রাব্বানী

তিনি আরও লিখেন, আমি আমার জীবনের প্রথম চলচ্চিত্র থেকে অসংখ্য প্রায় ১০০ বেশি ছায়াছবিতে টেলিসামাদ ভাই এর সাথে কাজ করেছি। আমার প্রযোজনায় নির্মিত প্রতিটি ছায়াছবিতে আমি টেলিসামাদ ভাই কে রেখেছি। আমেরিকায় চিত্রায়িত দেশ-বিদেশ, নেপালে নেপালী মেয়ে, ব্যাংককে চিত্রায়িত বাপের বেটা, হিম্মত ওয়ালী, প্রাণসজনী, আমার সংসার, সন্দেহ, সমস্যা, নবাবজাদী। এছাড়া চোখের মনি, ষড়যন্ত্র, মাসুম, ঈদ মোবারক, মহান, রাজার রাজা, প্রামান, নাগমাতা, নাগিনা, বিক্রম, বিস্ফোরণ, আখেরি নিশান, যাদুনগর, আনার কলি, ছোট মা, অশিক্ষিত, মেহমান, ফুলেশ্বরী, সুপারস্টার, গ্রেফতার, প্রিয়বান্ধবী, অংকুর, বাঁশরী, খঞ্জর, মায়ামহল, সপ্তডিঙ্গা মধুকর, মাটির মায়া, অন্ধবধু, ডাকু দরবেশ সহ। আরও অসংখ্য ছায়াছবিতে অভিনয় করেছি। আপনি যেখানে থাকেন ভালো থাকেন।

আজ বাদ মাগরিব পশ্চিম রাজাবাগে টেলিসামাদের প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে এরপর বাদ এশা মগবাজারের দিলু রোডে দ্বিতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান টেলি সামাদের ভাগ্নে ফাহিম।

>>আরো পড়ুনঃ  টাকার ওপর লেখা-সিল দেয়া যাবে না

এরপর আগামীকাল সকাল ১১ টায় এফডিসিতে তৃতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর মুন্সিগঞ্জে পারিবারিক গোরস্থানে তাকে সমাহিত করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ