মেসিকে নিয়েই আর্জেন্টিনার কাতার বিশ্বকাপের নতুন দল !

স্পোর্টস ডেস্কঃ রাশিয়া বিশ্বকাপের হতাশা ভর করেছে পুরো দেশজুড়ে। তাই এখুনি কাতার বিশ্বকাপ জয়কে লক্ষ্য হিসেবে নিয়ে পুরোপুরি নতুন এক আর্জেন্টিনা দল গড়া হবে। যেখানে লিওনেল মেসি থাকতে পারেন বা নাও থাকতে পারেন। যদি মেসি থাকেন তাহলে মেসিকে নিয়েই গড়া হবে রণকৌশল । না থাকলে ভবিষ্যত মেসি পাওলো দিবালাই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিবেন।

কাতার বিশ্বকাপকে লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়ে আর্জেন্টিনা ফুটবলে বড়সড় একটা পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে, সেটির ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। ফ্রান্সের কাছে হারার পরপরই আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা হাভিয়ের মাচেরানো ও মিডফিল্ডার লুকাস বিলিয়া অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। লিওনেল মেসি হারার পরদিনই একা একা ফিরেছেন ক্লাব বার্সেলোনায়। অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, গঞ্জালো হিগুয়েইন, সার্জিও আগুয়েরোদের ভবিষ্যৎ কী, সেটি এখনো নিশ্চিত নয়।

আর্জেন্টিনার লক্ষ্য একটি তরুণ দল তৈরি করা, যারা তাদের ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে কাংক্ষিত ফলাফল এনে দিতে পারবে। গোলরক্ষক সামলাবেন ২৪ বছর বয়সী জেরোনিমো রুলি ।

সে বেশ কয়েক বছর ধরেই খেলছেন স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল সোসিয়েদাদে। সেখানে ভালো পারফরম্যান্সই আর্জেন্টিনার পরবর্তী নম্বর ওয়ান হতে সাহায্য করবে রুলিকে। আগামী বিশ্বকাপে সার্জিও রোমেরোর থাকার সম্ভাবনা খুবই কম।

রক্ষণভাগে বর্তমান দলের ২৫ বছর বয়সী নিকোলাস টাগলিয়াফিকো থেকে যেতে পারেন। সেন্টার ব্যাকে থাকবেন ২২ বছর বয়সী জেনিত সেন্টার ব্যাক ইমানুয়েল মাম্মানা ও একই বয়সের রিভারপ্লেট সেন্টার ব্যাক লুকাস মার্টিনেজ কুয়ার্তা । রাইট ব্যাক হিসেবে আসবেন ইন্ডিপেনদিয়েন্তে ২২ বছর বয়সী ফ্যাব্রিসিও বুস্তোস।

মাঝমাঠে হাভিয়ের মাসচেরানোর অভাব পূরণ করতে আছেন জার্মান ক্লাব স্টুটগার্টের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ২১ বছর বয়সী সান্টিয়াগো আসকাসিবার। মিডফিল্ডে তাঁর সঙ্গী হবেন পিএসজির ২২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার জিওভানি লো সেলসো। আসকাসিবার ও সেলসোর সঙ্গে থাকবেন লিয়ান্দ্রো পারেদেস। রাশিয়া বিশ্বকাপে ২৪ বছর বয়সী পারেদেসকে দলে নেওয়া হয়নি বলে সাম্পাওলিকে কম কথা শুনতে হয়নি। সেই পারেদেসই হবেন মাঝমাঠে আর্জেন্টিনার প্রাণভোমরা। সৃষ্টিশীলতার অভাব পূরণ করবেন ওয়েস্ট হাম মিডফিল্ডার ২৫ বছর বয়সী ম্যানুয়েল ল্যানজিনি। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগেই মারাত্মক চোটের কারণে ল্যানজিনির বিশ্বকাপ স্বপ্নে ধাক্কা দেয়।

আক্রমণভাগে সবার ওপরে থাকবেন রাশিয়া বিশ্বকাপে দলে না থাকা স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি। ২৪ বছর বয়সেই ইন্টার মিলানের মতো ক্লাবের অধিনায়ক ও ইউরোপের সেরা স্ট্রাইকারদের একজন ইকার্দি। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ইকার্দিই হবেন আর্জেন্টিনার নাম্বার নাইন। ইর্কাদি সঙ্গে আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগের দায়িত্বে থাকবেন পাওলো দিবালা, তাঁকে ভাবা হয় আর্জেন্টিনার ভবিষ্যৎ মহাতারকা। দিবালা রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার সুযোগই পেয়েছেন কেবল ২৬ মিনিট। অথচ গেল মৌসুমে জুভেন্টাসের হয়ে ২৬ গোল করেছিলেন ২৫ বছর বয়সী দিবালা। লিওনেল মেসির সঙ্গে খেলার ধরনে মিল থাকায় দিবালাকেও মেসির পরে আর্জেন্টিনার অধিনায়ক ভাবা হয়। সেই দিবালা-ইকার্দি জুটি প্রতিপক্ষের রক্ষণে ত্রাস ছড়াবেন। সাথে থাকবেন অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের আন্দ্রে কোরেয়া। সেই সাথে থাকবেন ক্রিস্টিয়ান পাভন । আগামী বিশ্বকাপে হিগুয়েনের না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। হয়তো দেখা যেতে পারে সার্জিও অ্যাগুয়েরো ও ডি মারিয়াকে ।

আক্রমণভাগের জুটির পেছনে থাকবেন স্বয়ং লিওনেল মেসি, যদি তিনি খেলেন। নিজের মিডফিল্ডার সত্তাটা এবার পুরোপুরি জাগিয়ে তুলতে হবে মেসিকে। দিবালা-ইকার্দিকে গোলের সুযোগ তৈরি করে দিতে মেসির থেকে ভালো বিকল্প আর কেউ হতে পারেন না। মেসির সৃষ্টিশীলতাই গোলের দরজা খুলে দেবে স্ট্রাইকার জুটির জন্য। মেসিকে ঘিরেই নতুন আর্জেন্টিনা দলটি তৈরি করা হবে। আশা জাগানিয়া দলই হবে এ দলটি।

বেশিরভাগ তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়েই দলটি গড়া হবে। যেখানে থাকবে নতুন উদ্যোম, স্পিরিট,রণ কৌশল ও দক্ষতা।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ