ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় ব্যবসায়ীর প্রহারে রিক্সাচালক গুরুতর আহত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় টিপরা বাজারে রোববার বিকেলে আবু তাহের নামের এক ব্যবসায়ীর প্রহাওে গুরুতর আহত হয়েছে আনোয়ার নামের এক রিক্সাচালক । বর্তমানে সে কুমিল্লা মহানগরীর রেসকোর্স এলাকায় মুক্তি নামের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থানীয় একাধিক দায়িত্বশীল সুত্রে পাওয়া তথ্যে জানা যায়,কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে রোববার বিকেল আনুমানিক সাড়ে ৩টায় হাইওয়ে পুলিশের একটি মোবাইল টিম ধাওয়া করে। এসময় রিক্সা নিয়ে চালকরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে আনোয়ার নামের এক চালক তার রিক্সা নিয়ে ময়নামতি সিনেমাহল সংলগ্ন এলাকায় ঢুকে পড়ে। তখন রিক্সায় লেগে টিপরা বাজারের বিসমিল্লাহ হার্ডওয়্যার নামের এক দোকানের মালিক আবু তাহেরের শার্ট ছিড়ে যায়। এতে উত্তেজিত হয়ে তিনি চালক আনোয়ারকে বেদড়ক প্রহার সহ এক পর্যায়ে লোহার তৈরী রেঞ্জ দিয়ে আঘাত করলে সেটা গোপনাঙ্গে আঘাত করে। ফলে আনোয়ার মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তখন আবু তাহের ও তার ছেলে কাসেম তাদেও দোকান বন্ধ কওে দ্রুত পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার কওে ময়নামতি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লায় পাঠানো হয়। এরপর অভিযুক্তের পক্ষের লোকজন বিষয়টি গোপন কওে আনোয়ারকে নগরীর রেসকোর্স এলাকায় মুক্তি হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে আনোয়ার মৃত্যুও সাথে পাঞ্জা লড়ছে। আনোয়ারের বাড়ি রংপুর জেলায়। সে ময়নামতি ইউনিয়নের গ্রামে থেকে একই ইউনিয়নের ডাকলাপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেন নামের অন্য একজনের রিক্সাচালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো।

অভিযুক্ত আবু তাহের কুমিল্লা সদর উপজেলার ময়নামতি সেনানিবাস সংলগ্ন সাহেবনগর (১৬ নং গেট) লাকিবাড়ি এলাকার বাসিন্দা। এই ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পিতা-পুত্র পলাতক রয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ