রেল লাইনের কাছেই ছিল ট্রেন পরিচালকের (গার্ড) শ্বশুরবাড়ি। ট্রেনটি হাটহাজারী স্টেশনে থামার পর কাউকে না বলে চলে গেলেন শ্বশুরবাড়িতে।

এদিকে পরিচালক ছাড়া ট্রেনটি দাঁড়িয়ে যায় স্টেশনে। ফলে প্রায় এক ঘণ্টা পর রেলের অন্যান্য স্টাফদের ফোনে তিনি ফিরে এসে ট্রেন চলার সংকেত দেন। এতে প্রায় এক ঘণ্টা দেরি হওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন যাত্রীরা।

আজ বৃহস্পতিবার ওই গার্ডকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম-নাজিরহাট কমিউটার ডেমু-৪ ট্রেনের পরিচালক মো. জুনায়েদ এ কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

ওই ট্রেনের লোকোমাস্টার ছিলেন মো. মহিউদ্দিন। গত ২৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) নাজিরহাট থেকে ঠিক সময়ে ছেড়ে আসে ট্রেন। হাটহাজারী স্টেশনে ডেমু ট্রেনটি থামলে গার্ড জুনায়েদ কাউকে না জানিয়ে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে শ্বশুরবাড়িতে চলে যান।

গার্ডের সিগন্যাল না পাওয়ায় লোকোমাস্টার মহিউদ্দিন ট্রেন ছাড়তে পারেননি।

গার্ডকে না পেয়ে তিনি স্টেশন মাস্টার মো. আরিফের মাধ্যমে পাহাড়তলী কন্ট্রোল অফিসকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে টেলিফোন পেয়ে হাটহাজারী থেকে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে ফতেয়াবাদ আসার পর ওই ট্রেন ছাড়ে। এতে প্রায় এক ঘণ্টা দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাত্রীদের।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক বোরহান উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ওই ট্রেনের গার্ডকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।