রাজপথে নেই কুমিল্লার সিটি মেয়র মনিরুল হক সাক্কু

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের দুই বারের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাদণ্ড দেয়ার পর প্রতিবাদ কর্মসূচিতে মাঠে দেখা না যাওয়ায় তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। মেয়র সাক্কু বিএনপির কর্মসূচীতে অনুপস্থিত থাকায় তার দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে স্থবির হয়ে পড়ার আশঙ্কাও রয়েছে বলে জানা গেছে। এ নিয়ে দলের একাধিক নেতার সাথে কথা হলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, তাদের আন্দোলনের প্রস্তুতি ছিল পর্যাপ্ত। কিন্তু নেতার নির্দেশ না আসায় তারা রাজপথে নামেননি।

জানা যায়, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপির) সভানেত্রী ও তিন বারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে দেশ জুড়ে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন পন্থায় তুমুল আন্দোলন গড়ার কঠোর হুশিয়ারী দিলেও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের দুই বারের মেয়র ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক সাক্কু গ্রুপের নেতাকর্মীরা পিছিয়ে রয়েছে।

যদিও মাঠে কেন্দ্রীয় বিএনপির ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী আমিনুর রশিদ ইয়াছিন গ্রুপের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে কারাবরণও করছে অন্যদিকে গ্রেফতারের ভয়ে মেয়র সাক্কুর রাজপথে না থাকায় বিএনপির কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তি ছড়িয়ে পড়েছে। কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয়হীনতা ও অকার্যকর কর্মসূচিতে তৃণমূলে দেখা দিয়েছে হতাশা। বিভ্রান্তি ও দ্বিধা-বিভক্তি স্পষ্ট লক্ষ্য করা গেছে কুমিল্লাতেও।

খালেদা জিয়ার রায়ের পর ঘোষিত দুই দিনের কর্মসূচিতে কুমিল্লায় আন্দোলনের মাঠে দেখা যায়নি অনেক নেতা কর্মিকে। তার মধ্যে অন্যতম কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মেয়র মনিরুল হক সাক্কু।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র মনিরুল হক সাক্কু অনেকটা বিনা বাধায় বিএনপির মনোনয়ন লাভ করে দ্বিতীয়বারের মত মেয়র নির্বাচিত হন। তবে দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার কারাদন্ডের পর দুই দিনের কর্মসুচিতে একদিনও তাকে মাঠে দেখা যায়নি। বরং রায়ের আগের দিন অর্থাৎ গত বুধবার থেকেই তিনি কুমিল্লা ছেড়ে ঢাকায় অবস্থান করছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে। তৃণমূলের এ গুরুত্বপূর্ণ নেতার এমন ভূমিকায় কর্মিদের মাঝে নানান প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে।

এদিকে দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সব মামলা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছে কেন্দ্রীয় বিএনপির ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিন গ্রুপের নেতাকর্মীরা। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় কান্দিরপাড় জেলা দলীয় কার্যালয় সামনে বিএনপি নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু হয়।

এসময় জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া ও প্রচার সম্পাদক মোস্তফা জামান সহ মানববন্ধনে ২০ দলীয় জোটের নেতারাও অংশ নেন। কিন্তু সোমবার কুমিল্লায় অবস্থান করার পরও মেয়র সাক্কু গতকাল সোমবারও রাজপথে নামেননি। এ বিষয়ে মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা হলে তিনি বাসায় অবস্থা করছেন বলে তার সহকর্মী জানান।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: