বাংলাদেশের মানুষ ঈদযাত্রার দুর্ভোগকে দুর্ভোগ হিসেবে মনে করে না। এটা তারা ঈদ আনন্দের অংশ হিসেবে মনে করে। তবে, কিছুটা দুর্ভোগ যে নেই সেটা অস্বীকার করার উপায় নেই বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনালে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে শনিবার (১০ আগস্ট) পরিচালিত মোবাইল কোর্টের কার্যক্রম পরিদর্শনকালে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় ওবায়দুল আরও বলেন, গতকালের যানজট সড়ক পরিস্থিতির কারণে সৃষ্টি হয়নি। গত বৃহস্পতিবারের বৃষ্টি, খারাপ আবহাওয়া এবং কোরবানির পশু পরিবহনের কারণে এই যানজটের সৃষ্টি হয়েছিল।

যাত্রীদের অভিযোগ বিষয়ে সেতুমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, এবার ঈদে সড়ক, মহাসড়কের কোথাও কোনো যানজট নেই। তবে যানবাহন ধীরগতিতে চলছে। যানবাহনগুলো ধীরগতিতে আসছে বলে সময় লাগছে। এটাই বাস্তবতা। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগের কথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, এবার রাস্তায় কোথাও ভাঙাচোরা নেই। সেসব মেরামত করা হয়েছে। বাস র‍্যাপিড ট্রানজিটের (বিআরটি) কাজ চলায়, সেদিকে সমস্যা হওয়ার কথা ছিলো। তবে যত সমস্যা হবে বলে মনে করা হয়েছিলো, তার চেয়ে অনেক কম হচ্ছে।

ঢালাও মন্তব্য না করে স্পেসেফিক কোথায় কোথায় সমস্যা হচ্ছে সেটা বুঝতে হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফোর লেনের রাস্তা থেকে উঠে এসে টু লেনের ব্রিজে উঠতে হতো। আবার আরেক দিকে ৮ লেনের রাস্তা থেকে এসে টু লেনের ব্রিজে উঠতে হতো। যার কারণে যানজট লেগেই থাকতো। সে সমস্যাটা এখন আর নেই। উত্তর জনপদের দিকে যে সমস্যাটা সেটা রাস্তা নয়, সমস্যাটা হচ্ছে ঢাকা এলেঙ্গা মহাসড়ক থেকে চার লেনের রাস্তার গাড়িগুলো যখন টু লেনে ওঠে। তখনই সমস্যা সৃষ্টি হয়।