লাকসামে চিকিৎসকের অবহেলায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার লাকসাম ফেয়ার হেলথ হসপিটালে চিকিৎসকের অবহেলায় প্রসূতির মৃত্যু অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নিহত মোসা: আফরোজা আক্তার (২২) লাকসাম উপজেলার গাইনের ডহরা এলাকার তেলিপাড়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের স্ত্রী।

জসিম উদ্দিন জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাফি পরীক্ষানুযায়ী আমাদের সংসারে নতুন অতিথি ছেলে সন্তান জন্ম দেয়ার কথা। কিন্তু ছেলে সন্তান দুনিয়াতে আসলেও ফিরে আসেনি ডাক্তারের ভূল চিকিৎসায় নিহত হওয়া আমার স্ত্রীর আফরোজা।

শুক্রবার রাতে লাকসাম ফেয়ার হেলথ হসপিটালের ডাক্তার শিরিন সুলতানার তত্ত্বাবধায়নে সিজার করা হয়। সিজারের জন্য ৯ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করি। কিন্ত দীর্ঘক্ষণ অপারেশনের পর রুম থেকে বাচ্চা ডেলিভারী হলেও আমার স্ত্রীকে বের করা হয়নি। পরে তার অবস্থা আশংক্যাজনক অবস্থায় বের করে দেয়া হয়। এসময় আমরা দেখি আমার স্ত্রীকে দুই বার অপারেশন করা হয়েছে। দুইবার অপারেশন পর তার মুখে অক্সিজেন না দিয়ে নল দিয়ে রেখেছে। পরে আমাদেরকে জানায় কুমিল্লায় নিয়ে যাওয়ার জন্য। দুই বার দুই জায়গায় কেটে কেন অপারেশন করা হয়েছে জানতে চাইলে কোন কিছু বলতে রাজি হননি ডাক্তার শিরিন। এছাড়া সে আমাদেরকে হসপিটাল থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য হুমকি ধমকি প্রদান করে। এসময় আমরা রোগীকে বাচাঁনোর জন্য কুমিল্লায় নিয়ে আসলে ডাক্তার তাকে মৃত. বলে ঘোষণা করেন। এদিকে স্বামী জসিম উদ্দিন স্ত্রী মৃত্যুর শোকে হসপিটালের ফ্লোরে চিৎকার করে কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ