লালমাই প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা জেলার লালমাই উপজেলার পেরুল উত্তর ইউনিয়নের আটিটি গ্রামের মোঃ ছানা উল্লাহর ছেলে কুখ্যাত চোর ও মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আজগরকে গত ৮ জানুয়ারী সদর দক্ষিণ থানা পুলিশ আটক করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজগর কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন ব্যাংকের শাখায় গিয়ে গ্রাহকদের উত্তোলনকৃত টাকা চুরি করে আসছে। এছাড়া আজগর এলাকায় গাঁজা বিক্রি এবং নিজেই সেবন করে আসছে। সদর দক্ষিণ মডেল থানার মামলাসূত্রে জানা যায়, অভিযোগকারী মোঃ ওমর ফারুক সদর দক্ষিণ উপজেলা একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প সঞ্চয় ব্যাংকের অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত আছে।

গত ১২ আগস্ট ২০১৮ অনুমান দুপুর ২-৩০ মিনিটের সময় মোঃ ওমর ফারুক পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড সোনালী ব্যাংকে ৩,৪০,০০০/-(তিন লক্ষ চল্লিশ হাজার) টাকা উত্তোলন করতে আসে। অনুমান বিকাল ৩-১৫ মিনিটের সময় ব্যাংক হতে টাকা উত্তোলন করে হাতে বুঝে নিয়ে দেখেন, বান্ডিলে ২টি ছিড়া নোট রয়েছে। বাকী টাকা ব্যাগে রেখে ছিড়া নোট ক্যাশ কাউন্টার থেকে পরিবর্তন করে সরাসরি নিজ অফিসে চলে যান। অফিসে গিয়ে টাকা বুঝিয়ে দেওয়ার সময় দেখেন ১০০০/-এক হাজার নোটের একটি বান্ডিলে থাকা ১ লক্ষ টাকা ব্যাগে নাই। সাথে সাথে সোনালী ব্যাংকে গিয়ে টাকা কম থাকার বিষযটি তিনি ম্যানেজারকে জানান। ম্যানেজার সিসি ক্যামরার ভিডিও ফুটেজে দেখতে পান, চোর আজগর ব্যাংকের ভিতর মোঃ ওমর ফারুকের পিছনে পিছনে ঘুরতে থাকে। যখন মোঃ ওমর ফারুক ছিড়া টাকা ২টি পরিবর্তন করতে ক্যাশ কাউন্টার ব্যস্ত তখন চোর আজগর কৌশলে ব্যাগ কেটে ১লক্ষ টাকা নিয়ে ব্যাংক থেকে পালিয়ে যায়। আসামী আজগরকে মোঃ ওমর ফারক সনাক্ত করার পর জানা যায়, আজগর সদর দক্ষিণ উপজেলা একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প সঞ্চয় ব্যাংকের এর একজন গ্রাহক। অজ্ঞাত অন্যান্য আসামীদের যোগসাজসে আজগর টাকা চুরির অপকর্ম দীর্ঘদিন ধরে করে আসছে। কুখ্যাত চোর ও মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আজগরকে পুলিশ আটক করার খবর শুনে এলাকায় মানুষ আনন্দিত হয়েছে। মামলা নং-০৫, তারিখ-০৮-০১-২০১৯, ধারা-৩৭৯ পেনাল কোড-১৮৬০, সদর দক্ষিণ মডেল থানা, কুমিল্লা।

এ ব্যাপারে সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইন-চার্জ মোঃ মামুন-অর রশিদ পিপিএম বলেন আসামী মোঃ আজগরকে কোর্টের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।