ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লা মহানগরীর সদর দক্ষিণ অংশের ২২নং ওয়ার্ডের গোপিনাথপুর গ্রামে অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিক্ষার্থী মিনা কে (ছদ্ম নাম) পরিবারের পক্ষ থেকে জোড়পূর্বক বিয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যে বাল্য বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সকল প্রস্তুতিও সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। ২ আগষ্ট শুক্রবার (আজ) বিয়ের পিড়িতে বসছে অপ্রাপ্ত বয়স্ক এ শিক্ষার্থী। সে কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজ একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী।

সূত্রে জানা যায়,জেলার সদর দক্ষিণের পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড সংলগ্ন ২২নং ওয়ার্ডের গোপিনাথপুর গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী দেলোয়ার হোসেন এর অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে ২ আগষ্ট শুক্রবার (আজ) চৌদ্দগ্রাম উপজেলার মিয়া বাজার এলাকায় এক কাতার প্রবাসীর সাথে বিয়ে ঠিক করে। বাল্য বিয়ে দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ জেনেও দেশের আইনের তোয়াক্কা না করে বাল্য বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সকল প্রস্তুতিও সম্পন করেছে পরিবার।
এ ব্যাপারে সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিয়া মোহাম্মাদ কেয়ামউদ্দিন জানান,১৮ বছরের পূর্বে কোন মেয়েকে বিয়ে দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ। বাল্য বিয়ের অভিযোগ পেয়েছি। দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ গ্রহন করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ