ডেস্ক রিপোর্টঃ বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর নিহত হওয়ার ঘটনায় যখন সারাদেশে ছাত্রবিস্ফোরণ, আলোচনা আর সমালোচনার ঝড় বইছে তখন অপরদিকে সারা দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের ৩ দফা এবং নিরাপদ সড়কের জন্য ৯ দফা দাবিতে আগামীকাল শনিবার (৪ আগস্ট) সারা দেশে এই ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।

আজ শুক্রবার (৩ আগস্ট) বিকাল পাঁচটার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এই কর্মসূচি ঘোষণা করে সংগঠনটির নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক বিন ইয়ামিন মোল্লা। তিনি বলেন, ‘আগামীকাল শনিবার সকাল থেকে সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে কোনো ক্লাস-পরীক্ষা হবে না এবং কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গাড়ি চলাচল করবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারা দেশে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে ঢাকার মিরপুর, দনিয়া, নারায়ণগঞ্জ, নোয়াখালী, চাঁদপুরসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ এবং সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে সব স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে আগামীকাল সারা দেশব্যাপী ছাত্রধর্মঘট ঘোষণা করা হলো।’

সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক আবু হানিফ বলেন, ‘নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারাদেশের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ এবং সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে এই ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে।’

‘সরকারকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ৯ দফা, হামলাকারীদের বিচার এবং কোটা সংস্কার আন্দোলনের ৩ দফা দাবি মেনে নিয়ে অতি দ্রুত এ সমস্যার সমাধানের আহ্বান জানাচ্ছি। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে ধর্মঘট কর্মসূচিতে দেশের সব সচেতন শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও নাগরিকদের অংশগ্রহণ করার অনুরোধ করছি।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: